× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৮, রবিবার

দ্বিতীয় দফায় ট্রাম্পের সঙ্গে বসতে প্রস্তুত কিম জং

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ৯ অক্টোবর ২০১৮, মঙ্গলবার, ৮:৫৭

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে দ্বিতীয়বারের মতো বৈঠকে বসার আগ্রহ প্রকাশ করেছেন উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উন। রোববার দক্ষিণ কোরিয়ার তরফ থেকে বলা হয়েছে, যত দ্রুত সম্ভব দুই দেশ আবারো সর্বোচ্চ পর্যায়ের বৈঠকে বসতে যাচ্ছে। যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও পিয়ংইয়ংয়ে কিম জং উনের সঙ্গে বৈঠক শেষে সিউলে পৌঁছার পর দক্ষিণ কোরিয়া এক বিবৃতিতে এ কথা বলেছে। এ খবর দিয়েছে আল-জাজিরা।

খবরে বলা হয়, রোববার সকালে কিম জংয়ের সঙ্গে দীর্ঘ দুই ঘণ্টা বৈঠক করেন মাইক পম্পেও। পরে সিউলের উদ্দেশ্যে উত্তর কোরিয়ার ছাড়েন তিনি। সিউলে পৌঁছে পম্পেও বলেন, চেয়ারম্যান কিম জং যত দ্রুত সম্ভব দ্বিতীয় বৈঠকে বসতে রাজি হয়েছেন। দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্টের দপ্তর থেকে পাঠানো এক বিবৃতি এ কথা বলা হয়।
তবে এতে পরবর্তী ট্রাম্প-কিম বৈঠকের সুনির্দিষ্ট কোনো তারিখ বা স্থানের কথা উল্লেখ করা হয়নি।

এদিকে সোমবার সিউলে এক সংবাদ সম্মেলনে পম্পেও দাবি করেন, উত্তর কোরিয়া তাদের ধ্বংস করে দেয়া পারমাণবিক স্থাপনায় আন্তর্জাতিক পর্যবেক্ষকদের প্রবেশে অনুমতি দেবে। তিনি বলেন, পারমাণবিক নিরস্ত্রীকরণের দীর্ঘ প্রক্রিয়ায় তাৎপর্যপূর্ণ অগ্রগতি হয়েছে। পারমাণবিক নিরস্ত্রীকরণ প্রক্রিয়ার অন্যতম জটিলতা ছিল পর্যবেক্ষকদের প্রবেশের বিষয়টি। উত্তর কোরিয়া যদি আসলেই তাদের পারমাণবিক স্থাপনায় পর্যবেক্ষকদের প্রবেশের অনুমতি দেয়, তাহলে এটা হবে নিরস্ত্রীকরণ প্রক্রিয়ায় বিরাট অগ্রগতি।

এ বছরের মে মাসে উত্তর কোরিয়া পাঙ্গিয়েরিতে অবস্থিত তাদের অন্যতম প্রধান পারমাণবিক স্থাপনার একাংশ ধ্বংস করে দেয়। কিন্তু দেশটির এ দাবি যাচাই করে দেখার জন্য সেখানে আন্তর্জাতিক পর্যবেক্ষকদের অনুমতি দেয়া হয়নি। সোমবার সিউলে পম্পেও বলেন, চেয়ারম্যান কিম বলেছেন, তিনি পর্যবেক্ষকদের প্রবেশের অনুমতি দিতে প্রস্তুত।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর