× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৮, সোমবার

বৃদ্ধ বাবাকে মেরে বের করে দিলো ছেলেরা

অনলাইন

মধুপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি | ৯ অক্টোবর ২০১৮, মঙ্গলবার, ১১:৩৩

টাঙ্গাইলের মধুপুরে ৯০ বছরের বৃদ্ধ বাবাকে পালগ অপবাদ দিয়ে মারধর করে বাড়ি থেকে বের করে দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। উপজেলার মহিষমারা  (ঘোনাপাড়া) গ্রামের এ ঘটনা ঘটে। ঐ গ্রামের বৃদ্ধ শরাফত আলীকে গত রোববার ছেলে জয়নাল (২২),দরাজ আলী (৪০) এবং জয়নালের মা আনোয়ারা বেগম (৩৫) মিলে নির্যাতন করে তাকে বাড়ি থেকে বের করে দিয়েছে।

জানা যায়, বৃদ্ধ শরাফত আলী ৭ বিঘা জমি কিনে দুইটি বাড়ি করে দুই ছেলেকে দিয়েছেন। শরাফত আলীর প্রথম স্ত্রী মারা যাওয়ার পর দ্বিতীয় বিয়ে করে ছোট ছেলে জয়নাল আবেদীনের সাথে থাকেন। কিন্তু জয়নাল পুরো জমি কাউকে চাষ করতে দেয়না এমনকি কেউ বর্গা নিয়ে চাষ করলে ফসল কেটে নষ্ট করে ফেলে।
শরাফত আলী জানান, আমারে মারছে,আমারে খাবার দেয়না। জয়নাল আমার ঘর ভাঙছে, ডেষ্ক (বাক্স) ভাইঙ্গা টেহা নিয়া গেছে।
স্থানীয় মজিদ মিয়া (৫৫) জানান, ছেলেরা শরাফতকে পাগল বলে, কিন্তু কেউ পাগল থাকলে ৭ বিঘা জমি করতে পারবে?
হাসনা আক্তার (২৫) জানান, জয়নাল বাড়ি-ঘর ভাংচুর করে। শরাফত মাঝে মাঝে বাড়িতে থাকেনা।
শরাফত আলীর বড় ছেলে দরাজ আলী জানান, বাবা জয়নালের কাছে থাকেন, আমাকে শুধু বাড়ির জায়গা দিয়েছেন।
তারপরও বাবাকে আমার কাছে থাকতে বলি কিন্তু তিনি থাকেন না।
ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে স্থানীয় ইউ.পি সদস্য মো. দেলোয়ার হোসেন জানান, এর আগেও বিষয়টি সমাধান করে দিয়েছিলাম, কিন্তু জয়নালের জন্যই বারবার এমন ঘটনা ঘটে।
মহিষমারা ইউ.পি চেয়ারম্যান কাজী আব্দুল মোতালেব জানান, ঐ বৃদ্ধকে তো আমি বয়স্ক ভাতার কার্ড দিয়েছি। খোঁজ নিয়ে আমি ব্যবস্থা নেব।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
tahmid
৯ অক্টোবর ২০১৮, মঙ্গলবার, ৯:১০

ai kulanger cheyle der crossfire dea u chit

Saidur Rahaman
৯ অক্টোবর ২০১৮, মঙ্গলবার, ৩:৫২

ah -ha. Nothing can replace father/mother., probably the most valuable gift from Allah

Yakub
৯ অক্টোবর ২০১৮, মঙ্গলবার, ২:১১

হাইরে বাপ। বাবা যার নাই সেই জানে, কত দামী সম্পদ ছিল বাবা। আর কিছু লিখতে পারলাম না।

মো ঃআলামিন
৯ অক্টোবর ২০১৮, মঙ্গলবার, ২:৩৯

বয়স্ক ভাতা বৃদ্ধদের বাড়ীতে পৌছানোর জন্য কয়েকজন লোক নিয়োগ করা দরকার সমাজসেবা মন্ত্রণায়ের এবং দেরীতে টাকা পৌছলে জবাবদিহিতা ও চাকরীচ্যুত সহ বিভিন্ন নীতিমালায় আইন করা প্রয়োজন । বৃদ্ধরা বযস্ক ভাতা উত্তোলন করতে কষ্ট হয়।

Nixon pandit
৮ অক্টোবর ২০১৮, সোমবার, ১১:৪৩

চেয়ারম্যান বাবু, দয়া করে যেটা করবেন শীঘ্রই করুণ । বড়ই পরিতাপের বিষয় বাবু । বাবা বলে কথা । হয়তো ছেলেরা তাঁর বিশেষ কিছু করে না, তাই বাবার সম্পত্তিতেই তারা নির্ভর করে বেঁচে থাকতে চায় । ধন্যবাদ

অন্যান্য খবর