× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা রম্য অদম্য
ঢাকা, ২০ অক্টোবর ২০১৮, শনিবার

‘মোটামুটিভাবে চলছে মিউজিক ইন্ডাস্ট্রি’

বিনোদন

ফয়সাল রাব্বিকীন | ১০ অক্টোবর ২০১৮, বুধবার, ৮:২৯

ক্লোজআপ ওয়ান প্রতিযোগিতার পর যে ক’জন নিজেদের প্রতিষ্ঠিত করতে পেরেছেন সংগীতশিল্পী হিসেবে তাদের মধ্যে সানিয়া সুলতানা লিজা অন্যতম। এ প্রতিযোগিতার পর থেকেই গানের জগতে নিয়মিত তিনি। অডিও এবং সিনেমার গানেও ব্যস্ত সময় পার করছেন লিজা। শুধু তাই নয়, অডিওর পাশাপাশি বিভিন্ন মিউজিক ভিডিওতেও তার পারফরম্যান্স প্রশংসিত হয়েছে। এর বাইরে দেশে-বিদেশের স্টেজ শোতেও লিজা নিত্যই ব্যস্ত থাকেন। স্টেজ, নতুন গান নিয়ে এরই মধ্যে টানা ব্যস্ততা যাচ্ছে তার। দেশের বিভিন্ন স্থানেও স্টেজ শো করছেন এ শিল্পী। সব মিলিয়ে কেমন আছেন? লিজা বলেন, খুব ভালো।
তবে বেশ ব্যস্ত থাকতে হচ্ছে। এখনকার ব্যস্ততা মূলত কি নিয়ে? লিজা বলেন, শো নিয়ে তুমুল ব্যস্ত থাকতে হচ্ছে। শীত মৌসুম আসার আগেই এবার শো এর ব্যস্ততা শুরু হয়ে গেছে। টানা শো করছি দেশের বিভিন্ন স্থানে। শোর ব্যস্ততা সারা বছরই থাকে। তবে শীতের মৌসুমে ব্যস্ততাটা বেড়ে যায়। অবশ্য এবার আগেভাগেই শো আয়োজনটা বেড়ে গেছে। কদিন আগেই তো দু’টি গান পর পর প্রকাশ হয়েছে। সেগুলোর সাড়া কেমন মিলেছে? লিজা বলেন, ‘ভালোবাসি বলা হয়ে যাক’ এবং ‘আসমানি’- শীর্ষক দু’টি গানের মিউজিক ভিডিও প্রকাশ হয়েছে। ভালো সাড়া পেয়েছি এ গানগুলো থেকে। অডিও এবং ভিডিও দু’টোরই প্রশংসা করেছেন সবাই। তাছাড়া আমার পারফরম্যান্সেরও প্রশংসা পেয়েছি। তাই উৎসাহটাও বেড়ে গেছে। নতুন গান নিয়ে পরিকল্পনা কী? লিজা উত্তরে আত্মবিশ্বাসের সুরে বলেন, নতুন কিছু পরিকল্পনা রয়েছে। তবে শোর ব্যস্ততার কারণে বিষয়গুলো সময়সাপেক্ষ হয়ে যায়। আবার ক’দিন আগে আমি ছুটি কাটিয়ে এসেছি আমেরিকা থেকে। তবে এরইমধ্যে নতুন একটি গান করেছি। এখন তার ভিডিও নির্মাণের প্রস্তুতি নিচ্ছি। আমার বিশ্বাস ভালো একটা কিছু হতে যাচ্ছে। এ গানটির বাইরে আরো কয়েকটি গানের কাজ চলছে। সেগুলোও নির্দিষ্ট সময় পর পর ভিডিও আকারে প্রকাশ
করবো। প্লেব্যাক কি করা হচ্ছে? লিজা বলেন, সর্বশেষ ‘শ্বশুরবাড়ি জিন্দাবাদ-২’ ছবিতে গেয়েছি। দেবাশীষ বিশ্বাস পরিচালিত এ ছবিতে একটি দ্বৈত গান গেয়েছি। আমার সহশিল্পী হিসেবে ছিলেন ইমরান। গানটির সুর ও সংগীত করেছেন ইমন সাহা দাদা। চমৎকার একটি কাজ হয়েছে। আর চলতি বছর ‘গহিন বালুচর’ ছবিতে ইমন সাহার সুরেই ‘তারে দেখি আমি রোদ্দুরে’ গানটি প্রকাশ হয়েছে আমার। এ গানটির সাড়া অনেক ভালো পেয়েছি। আরও বেশকিছু ছবিতে গাওয়ার কথা রয়েছে সামনে। এই সময়ে মিউজিক ইন্ডাস্ট্রির অবস্থা কেমন মনে হচ্ছে? লিজা উত্তরে বলেন, আমার মনে হয় একদম খারাপও না। আবার খুব ভালোও না। মোটামুটিভাবে চলছে মিউজিক ইন্ডাস্ট্রি। তবে শিল্পীদের জন্য ইতিবাচক বিষয় হলো এবার খুব ভালো শোর আয়োজন হচ্ছে। আর নতুন গানে এখন অনেক কোম্পানিই বিনিয়োগ করছে। অনেকে ব্যক্তিগতভাবেই ইউটিউবে গান প্রকাশ করতে পারছে। এখনতো ডিজিটালি গান প্রকাশ হচ্ছে। সেক্ষেত্রে গানের স্বত্ব নিজের কাছে রেখে গান করা যাচ্ছে। গান প্রকাশ ও শোনাটাও সহজ হয়ে গেছে। ইউটিউবে গান সব থেকে বেশি শুনছেন ও দেখছেন শ্রোতারা। আমার মনে হয় এই ডিজিটালি গান প্রকাশে এখন আমরা অভ্যস্ত হচ্ছি। যখন পুরোপুরি অভ্যস্ত হয়ে যাবো তখন সুফলটা হয়তো আমরা পাবো। সেই প্রত্যাশাই করি।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর