× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৮, সোমবার

সরিষাবাড়ীতে পরীক্ষার হলে হামলা, আহত ৮

বাংলারজমিন

সরিষাবাড়ী (জামালপুর) প্রতিনিধি | ১০ অক্টোবর ২০১৮, বুধবার, ৮:৩২

সরিষাবাড়ী উপজেলার কুঠির হাট উচ্চ বিদ্যালয়ে টেস্ট (নির্বাচনী) পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে হামলার ঘটনা ঘটেছে। হামলায় তিন শিক্ষক ও পাঁচ পরীক্ষার্থী আহত হয়েছে। গতকাল সকালে এ ঘটনা ঘটে। এলাকাবাসী ও শিক্ষার্থীদের সূত্রে জানা যায়, সোমবার পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে কুঠির হাট উচ্চ বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেণির পরীক্ষার্থী রমজান ১০ম শ্রেণির নির্বাচনী পরীক্ষার্থী শহীদের (রোল-৪৯) বেঞ্চে পা তুলে দেয়। শহীদ বাধা দিলে এ নিয়ে তর্কবিতর্ক হয়। পরদিন সকালে ১০ম শ্রেণির পরীক্ষার্থী শহীদ, সোহাগ, মামুনুর রশীদসহ কয়েকজন এক সঙ্গে স্কুলে যাওয়ার পথে কুঠির হাট খোলা ব্রিজের ওপর পূর্ব থেকে ওঁৎ পেতে থাকা বাদশা-রমজানের বন্ধুরা শহীদের ওপর হামলা চালায়। বন্ধুদের বাধার মুখে শহীদকে মারতে ব্যর্থ হলে তারা কৃষি বিজ্ঞান পরীক্ষায় অংশ নেয়। এদিকে, বাদশার পিতা স্কুলের ম্যানেজিং কমিটির সদস্য আনোয়ার হোসেন বুলুর নেতৃত্বে কতিপয় সন্ত্রাসী পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে আবারো ছাত্রদের ওপর হামলা চালায়।
পরীক্ষার্থীদের বাঁচাতে শিক্ষকরা এগিয়ে এলে তাদেরও পিটিয়ে আহত করে। গুরুতর আহত মামুনুর রশীদ (রোল ৫০) ও সোহাগ (রোল ৫২)কে সরিষাবাড়ী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহত পরীক্ষার্থী শহীদ, শাকিল, আবুবকর সিদ্দিক রাজু ও ইংরেজি বিষয়ের সহকারী শিক্ষিকা আলেয়া খাতুন, সমাজ বিজ্ঞানের সহকারী শিক্ষক আজহারুল ইসলাম ও ইসলাম ধর্ম বিষয়ের সহকারী শিক্ষক তামানুর ইসলামকে স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। এ ঘটনার প্রতিবাদে পরীক্ষার পর শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করে দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেছে। সংবাদ পেয়ে সরিষাবাড়ী থানার পুলিশ ঘটনা স্থলে গিয়ে উত্তেজনাকর পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। শিক্ষার্থীদের বাড়ি ডোয়াইল ইউনিয়নের চর বালিয়া গ্রামে বলে জানা গেছে। শহীদের পিতা ভাজন আলী ও মাতা সূর্য ভানু স্কুল ক্যাম্পাসে উপস্থিত হয়ে তার ছেলে ও ছেলের বন্ধুদের ওপর সন্ত্রাসী হামলার নিন্দা জানিয়ে দোষীদের শাস্তির দাবি করেন।   সরিষাবাড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ মাজেদুর রহমান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, উত্তেজনাকর পরিস্থিতি এড়াতে কুঠির হাট উচ্চ বিদ্যালয়ে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।]

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর