× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা
ঢাকা, ১৬ অক্টোবর ২০১৮, মঙ্গলবার

১২ পয়েন্টের ভিত্তিতে রায়

অনলাইন

অনলাইন ডেস্ক | ১০ অক্টোবর ২০১৮, বুধবার, ১:০৬

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী মোশাররফ হোসেন কাজল বলেছেন, আদালতের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ১৯৭৫ সালে বঙ্গবন্ধুর পরিবারের ওপর যেভাবে হত্যাকান্ড চালানো হয়েছে। ঠিক সেভাবেই ২০০৪ সালের ২১শে আগস্ট গ্রেনেড হামলার এ মামলায় তারেকসহ অন্যান্যরা এ হত্যাকান্ড সংঘটিত করেছে। তিনি বলেন, ১২টি পয়েন্ট ডিসকাশন করে ১৯জনকে ফাঁসি ও ১৯ জনকে যাবজ্জীবন দিয়েছে আদালত । আর বাকীদের বিভিন্ন মেয়াদে শাস্তি দেয়া হয়েছে। তারেক জিয়াকে যাবজ্জীবন দেয়ায় এ রায়ে অসন্তুষ্ট প্রকাশ করে রাষ্ট্রপক্ষের এ আইনজীবী বলেন, তারেক জিয়া যেহেতু এ হামলার মাস্টার মাইন্ডে ছিলেন তাকে যাবজ্জীবন দেয়ায় বিশেষ করে আমি এ রায়ে সন্তুষ্ট নই। তার মৃত্যুদন্ডের জন্য উচ্চ আদালতে যাওয়ার কথা বলেন তিনি।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
Akhter Hossain Raju
১০ অক্টোবর ২০১৮, বুধবার, ১০:২১

মূল মাষ্টার মাইন্ড তারেক রহমানকে ফাঁসি দেওয়া উচিৎ ছিল, কারণ সমস্ত পরিকল্পনার মূল নায়ক তারেক রহমান এবং পরিকল্পনার স্থান হাওয়া ভবন, অন্যায় কারীকে আল্লাহও পছন্দ করে না, মনে রাখবেন পাপ বাপকেও ছাড়ে না।

Anwar Hossain
১০ অক্টোবর ২০১৮, বুধবার, ৪:১৫

আই সি টি আইনে মামলা হবেনা

Hhhjjh
১০ অক্টোবর ২০১৮, বুধবার, ৩:৩১

বাংলাদেশের আদালত। তেলাপকাও পাখি

Azad
১০ অক্টোবর ২০১৮, বুধবার, ১:৫৫

অবস্যই ফাঁসি হওয়া উচিত ছিল

অন্যান্য খবর