× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৮, বৃহস্পতিবার

খালেদা-তারেকের নাম বলিনি বলে আমার ফাঁসি - বাবর

প্রথম পাতা

স্টাফ রিপোর্টার | ১১ অক্টোবর ২০১৮, বৃহস্পতিবার, ১০:০০

একুশে আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী লুৎফুজ্জামান বাবর বলেছেন, এই মামলায় বিএনপি’র চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া ও তার ছেলে তারেক রহমানের নাম না বলার জন্য তার বিরুদ্ধে মামলা ও বিচারে সাজা দেয়া হয়েছে। গতকাল নাজিমউদ্দিন রোডের পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারের পাশে বিশেষ  আদালতে রায় ঘোষণার আগে লুৎফুজ্জামান বাবরকে বেলা ১১টার কিছু পরে কড়া নিরাপত্তায় আদালতে নিয়ে আসা হয়। রায়ের সময় তিনি কাঠগড়ায় উপস্থিত ছিলেন। রায়ের পর তিনি উপস্থিত সাংবাদিকদের বলেন, ‘এই মামলায় খালেদা জিয়া ও তারেকের নাম বলার জন্য আমাকে চাপ দেয়া হয়েছিল। আসামি হিসেবে তাদের নাম না বলায় আমাকে রাজনৈতিকভাবে এ মামলায় ফাঁসানো হয়েছে।

আমি আল্লাহর কাছে প্রার্থনা করছি, এই ঘৃণ্য অপরাধ যারা করেছে তাদের যেন শাস্তি হয়।’ তিনি আরো বলেন, ‘আমাকে মিথ্যা অভিযোগে সাজা দেয়া হয়েছে। যারা মিথ্যা অভিযোগে আমাকে সাজা দিয়েছে তাদের বিচার আল্লাহ একদিন করবেন।’ প্রসঙ্গত, ২১শে আগস্ট গ্রেনেড হামলার ঘটনায় হত্যা ও বিস্ফোরক আইনের মামলার রায়ে লুৎফুজ্জামান বাবরসহ ১৯ জনকে মৃত্যুদণ্ড ও বিএনপি’র ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানসহ ১৯ জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন ঢাকার দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের বিচারক শাহেদ নূর উদ্দিন। মামলার অন্য আসামিদের বিভিন্ন মেয়াদে সাজা দেয়া হয়েছে।।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
নুরুল কালাম
১১ অক্টোবর ২০১৮, বৃহস্পতিবার, ৭:২৯

আললাহর দোয়া আছে বলেই শেখ হাসিনা আজ বেচে আছেন। নয়তো ১৯ বার হত্যা চেষ্টার পরও তাকে মারতে পারলোনা। ইনশাআল্লাহ আগামী নিরবাচনেও নৌকার জয় হবে।

Aktar
১০ অক্টোবর ২০১৮, বুধবার, ১০:৪৩

Allah is powrpull

অন্যান্য খবর