× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা
ঢাকা, ১৬ অক্টোবর ২০১৮, মঙ্গলবার

হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত, অক্ষত সাগরসহ ছয় যাত্রী

প্রথম পাতা

স্টাফ রিপোর্টার, ঢাকা ও রাজশাহী | ১২ অক্টোবর ২০১৮, শুক্রবার, ১০:১৪

চ্যানেল আই-এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফরিদুর রেজা সাগরসহ ছয় যাত্রীকে নিয়ে রাজশাহীতে একটি হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত হয়েছে। আরোহীরা সকলেই অক্ষত রয়েছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার বিকাল পৌনে ৩টার দিকে উপজেলার আনোয়ারা ফাহিম জিয়াউদ্দীন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠ থেকে ইমপ্রেস এভিয়েশন লিমিটেডের এস-২ এএইচডব্লিউ মডেলের হেলিকপ্টারটি উড্ডয়নের পরপরই এই দুর্ঘটনায় পড়ে। দুর্ঘটনার পর পাইলট সৈয়দ সাকির আলী জানান, বৈরী আবহাওয়ার কারণে উড্ডয়নের পরপরই তিনি জরুরি অবতরণ করতে চেয়েছিলেন। কিন্তু তার আগেই কাত হয়ে প্রায় ৬০ ফুট উপর থেকে নিচে আছড়ে পড়ে হেলিকপ্টারটি। ঘটনার পর স্থানীয়রা ছুটে এসে যাত্রীদের উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যান। খবর  পেয়ে ফায়ার সার্ভিস ও স্থানীয় পুলিশ ঘটনাস্থলে আসে।

ওই বিদ্যালয়ের মাঠে অনুষ্ঠিত স্বর্ণকিশোরী সমাবেশে অংশ নিতে চ্যানেল আই’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফরিদুর রেজা সাগর, সংগীত শিল্পী ফেরদৌস আরা এবং স্বর্ণকিশোরী ফাউন্ডেশনের  চেয়ারম্যান ফারজানা ব্রাউনিয়াসহ ছয়জন হেলিকপ্টারযোগে ঢাকা থেকে সেখানে যান।
অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে ঢাকার উদ্দেশে হেলিকপ্টারটি স্কুল মাঠ থেকে উড্ডয়ন করে। এর কিছুক্ষণের মধ্যেই এটি আবার নিচে নামতে থাকে। এক পর্যায়ে নির্মাণাধীন একটি ভবনের এক পাশে আছড়ে পড়ে। হেলিকপ্টারের পেছনের একটি অংশ ভবনের পিলারের সঙ্গে আটকে যায়। কাত হয়ে পড়ায় আরোহীরা একপাশ দিয়ে নিরাপদে বের হয়ে আসেন। তাদেরকে উপজেলা সদরের একটি হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়। পরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ে কিছু সময় বিশ্রাম নিয়ে নভোএয়ারের বিমানে সন্ধ্যায় তারা ঢাকায় ফিরেন। ঢাকায় এসে বাংলাদেশে স্পেশালাইজড হাসপাতালে তারা চিকিৎসা নেন। রাতে তাদের দেখতে হাসপাতালে যান তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু।

গোদাগাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাহাঙ্গীর আলম জানান, হেলিকপ্টার বিকল হয়ে আছড়ে পড়ে। আর মাত্র ১০ হাত দূরে পড়লে বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটতে পারতো। আরোহীরা অক্ষত ছিলেন। তাদেরকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়ার পর ঢাকার উদ্দেশে রওনা দেন তারা।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
kazi
১১ অক্টোবর ২০১৮, বৃহস্পতিবার, ৮:২৮

রাখে আল্লাহ মারে কে । আয়ু থাকতে কেউ মরতে পারে না এটাই প্রমাণ হল।

অন্যান্য খবর