× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৮, রবিবার

ফুটবল মাঠে ডাইনি বুড়ি

ষোলো আনা

ষোলো আনা ডেস্ক | ১৯ অক্টোবর ২০১৮, শুক্রবার, ৯:০৫

১৯৭০ মেক্সিকো বিশ্বকাপে সুযোগ পেতে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে জয় ভিন্ন অন্য কোনো পথ খোলা নেই অস্ট্রেলিয়ার। ১৯৬৯ সালে  মোজাম্বিকে খেলার আগের দিন অজি খেলোয়াড়রা হাজির হলেন এক ডাইনি বুড়ির কাছে। ডাইনি বুড়ি বললেন জয় পেতে প্রতিপক্ষের গোল পোস্টের মাটির নিচে পুঁতে রাখতে হবে কিছু হাড়। ডাইনির কথা অনুযায়ী খেলার আগের দিন রাতের আঁধারে পুঁতে রাখা হলো হাড়। ডাইনির কথামতো রাখা হাড়ের ভেলকিতেই হোক কিংবা ভালো খেলার কারণে সেই ম্যাচে জয় পায় অস্ট্রেলিয়া। ৩-১ গোলের জয়ে টিকিট কাটে বিশ্বকাপের।

ডাইনি বুড়ি ফুটবলারদের বলেছিলেন জিম্বাবুয়েকে হারাতে পারলে দিতে হবে ১ হাজার পাউন্ড। ম্যাচ জয়ের পর সেই পুরো অর্থ দিতে অস্বীকৃতি জানায় অজি দল। তারা ডাইনি বুড়িকে দেয় অর্ধেক অর্থ।
ডাইনি অর্থ ফেরত দিয়ে রেগে অভিশাপ দিয়েছিলেন দ্বিতীয় রাউন্ডে যেতে পারবি না তোরা। তাই হয়েছিল অজিদের ভাগ্যে, তারা প্রথম রাউন্ডের ধাক্কা কাটিয়ে পা দিতে পারেনি দ্বিতীয় রাউন্ডে। ফাঁড়া কাটাতে ফের হাজির ডাইনি বুড়ির কাছে, ক্ষমা চেয়ে দিয়ে দেয় পুরো অর্থ। এবার ডাইনি বুড়ি দেন ফাঁড়া কাটানোর কৌশল। কোনো এক ভোরবেলা পুরো স্টেডিয়ামে একটি মুরগি জবেহ করে রক্ত ছড়িয়ে দিতে হবে। আর দু’জন ফুটবলারকে সেই স্টেডিয়ামে কাদা মেখে  গোসল করতে হবে। এভাবেই পুরো দলের কাটবে ফাঁড়া। ডাইনি বুড়ির কথামতো কাজ করে তারা।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর