× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার মন ভালো করা খবর
ঢাকা, ২২ অক্টোবর ২০১৯, মঙ্গলবার

বয়ফ্রেন্ডকে নিজের নাভি উপহার

রকমারি

| ২৭ অক্টোবর ২০১৮, শনিবার, ৬:০৪

শোনা যায়, শিল্পী ভিনসেন্ট ভ্যান গগ তাঁর একটি কান কেটে প্রণয়িণীকে উপহার দিয়েছিলেন। সে কথা সত্য, নাকি কিংবদন্তি, তা নির্ণীত নয়। কিন্তু বাস্তবে এমন ঘটনা ঘটেছে সম্প্রতি, যা ভয়াবহতায় টেক্কা দিতে পারে এই ‘কাহিনি’-কে।

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম ‘মিরর’-এ প্রকাশিত এক প্রতিবেদন থেকে জানা গিয়েছে, সম্প্রতি এই যুবতী নিজের নাভি উপড়ে এনে উপহার দিলেন তাঁর প্রেমিককে।

মেক্সিকোর জালিস্কোর বাসিন্দা ২৩ বছর বয়সি পলিনা ক্যাসিয়াস ল্যান্ডেরোসের পরিচিতি ‘বডি মডিফিকেশন ফ্যানাটিক’ হিসেবে। অর্থাৎ তিনি নিয়মিত দেহের বিভিন্ন অঙ্গে বদল আনেন। তাঁর জিভ দ্বিধাবিভক্ত এবং তিনি ‘ব্যাক করসেট’ নামের একটি অস্ত্রোপচার করান, যাতে মেরুদণ্ডের দু’পাশে ছিদ্র করা হয়।

২০১৫ সালে পলিনা স্থির করেন, তাঁর তৎকালীন বয়ফ্রেন্ড ড্যানিয়েল র‌্যামিরেজকে তাঁর নাভিটি উপড়ে উপহার দেবেন। মনস্থির করেন পলিনা।
পেশাদারদের দিয়েই অস্ত্রোপচার করে উপড়ে আনা হয় তাঁর নাভি। এবং তিনি তা ‘উপহার’ হিসেবে পাঠান ড্যানিয়েলকে।

তার পরে কেটে গিয়েছে বছর তিনেক। সম্প্রতি এই কাহিনিকে সংবাদমাধ্যমে ব্যক্ত করেছেন পলিনা। তিন বছরে তাঁর পরিবারের সঙ্গে এই কারণে তাঁর দূরত্ব বেড়েছে, তাঁকে ভুল বুঝেছেন তাঁর ঘনিষ্ঠরা। কিন্তু তিনি এই সব কিছুকেই সহ্য করেছেন এক দর্শনের কথা ভেবে। তিনি নিজেকে ‘ডিহিউম্যানাইড’ করতে চান। অর্থাৎ, মানুষের জন্মগত চিহ্নগুলি থেকে নিজের দেহকে মুক্ত করে অর্জন করতে চান ‘নিজস্ব’ অবয়ব।

নাভি উপড়ে আনার পরে তিনি দীর্ঘকাল অসুস্থ ছিলেন। ক্রমে শুকিয়ে আসে ক্ষত। কিন্তু পুরোপুরি সারেনি তা। ড্যানিয়েলের সঙ্গে উদ্দাম প্রেমও ফিকে হয়েছে। তবে আজও তাঁরা ভাল বন্ধু।

ইদানীং পরিবারের সঙ্গে সম্পর্কেরও খানিকটা উন্নতি হয়েছে পলিনার। তবে তাঁর দর্শন থেকে তিনি আজও পিছিয়ে আসেননি, জানিয়েছেন পলিনা।

সূত্রঃ এবেলা

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর