× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২২ নভেম্বর ২০১৮, বৃহস্পতিবার

আসামে ৫ বাঙালি হত্যার পর পরিস্থিতি থমথমে

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ৪ নভেম্বর ২০১৮, রবিবার, ১:০০

আসামে ৫ বাঙালিকে হত্যার পর পরিস্থিতি থমথমে। নিহতদের পরিবারের প্রতি শান্তনা ও সহমর্মিতা প্রকাশ করতে রোববার সেখানে গিয়েছে তৃণমূল কংগ্রেসের ৬ সদস্যের একটি দল। এ দলটিকে সেখানে পাঠিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। দলে রয়েছেন ডেরেক ও’ব্রায়েন, মমতা বালা ঠাকুর, নাদিমুল হক, মহুয়া মৈত্র প্রমুখ। এ খবর দিয়েছে অনলাইন জি নিউজ। এতে বলা হয়, ওই প্রতিনিধিরা আসামের ধিব্রুগড়ে পৌঁছেছেন। সেখান থেকে তারা তিনসুকিয়ায় যাবেন। সেখানে হত্যাকান্ডের শিকার পরিবারগুলোর সঙ্গে সাক্ষাত করার কথা তাদের।
ওই হত্যাকান্ডে ক্ষোভ পকাশ করেছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেছেন, দেশে এক সহিংসতার পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছে।
উল্লেখ্য, সম্প্রতি লোহিত নদীর পাড়ে নিয়ে ৫ বাঙালিকে হত্যা করা হয়। এর মধ্যে একই পরিবারের দু’জন রয়েছেন। এ হত্যার দায়ে অভিযুক্ত করা হচ্ছে পরেশ বড়ুয়ার নেতৃত্বাধীন ইউনাইটেড লিবারেশন ফ্রন্ট অব আসাম (উলফা-আই)কে। বলা হচ্ছে, সন্ত্রাসীরা খারবাড়ি বিসোনিবাড়ি এলাকা থেকে অস্ত্রের মুখে ওই ৫ ব্যক্তিকে একে এক তুলে নিয়ে হত্যা করে। তবে এর সঙ্গে জড়িত থাকার কথা অস্বীকার করেছে উলফা। অন্যদিকে নাগরিকদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে ব্যর্থতার জন্য আসামের মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সনোয়ালের পদত্যাগ দাবি করেছেন মমতা। একই সঙ্গে তিনি এ হত্যাকান্ডের বিচার বিভাগীয় তদন্ত দাবি করেছেন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর