× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ১৯ নভেম্বর ২০১৮, সোমবার

জাবিতে আওয়ামীপন্থি শিক্ষকদের হাতাহাতি

দেশ বিদেশ

জাবি প্রতিনিধি | ৮ নভেম্বর ২০১৮, বৃহস্পতিবার, ৯:৫০

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে (জাবি) এক বছরের বেশি সময় পর হতে যাওয়া  সিন্ডিকেট সভাকে কেন্দ্র করে ফের হাতাহাতি ও ধাক্কাধাক্কিতে জড়িয়ে পড়েছেন উপাচার্যপন্থি ও উপাচার্য বিরোধী শিক্ষকরা। আগস্ট ২০১৭ সালের পর  প্রথম গতকাল বিকাল  চারটায় সিন্ডিকেট সভা শুরু হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু মেয়াদোত্তীর্ণ সিন্ডিকেট ও ডিন নির্বাচন না দিয়ে কোন নিয়োগ না দেয়ার দাবি নিয়ে উপাচার্য বিরোধী আওয়ামীপন্থি শিক্ষকদের একটি অংশ বিকেল চারটায় উপাচার্যের সাথে সাক্ষাত করতে যান। এসময় উপাচার্যপন্থি শিক্ষকরাও সভাকক্ষের সামনে অবস্থান নেন। বিকেল সোয়া চারটায় কেন্দ্রীয় কৃষক লীগের সভাপতি ও বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট সদস্য মোতাহার হোসেন পাটওয়ারী সভায় যোগ দেয়ার জন্য আসলে তাকে সভায় যোগ না দিতে অনুরোধ করেন উপাচার্য বিরোধী শিক্ষকরা। কিন্তু মোতাহার হোসেন সভায় ঢুকতে গেলে তার পথরোধ করেন উপাচার্য বিরোধী শিক্ষকরা। এসময় উভয় পক্ষের শিক্ষকরা ধাক্কাধাক্কিতে জড়িয়ে পড়েন। এ ঘটনার ব্যাপারে উপাচার্য বিরোধী ‘বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় প্রগতিশীল শিক্ষক সমাজে’র  সাধারণ সম্পাদক ও মুখপাত্র অধ্যাপক ফরিদ আহমেদ বলেন, ‘আজকে যে ঘটনা ঘটেছে সেটি অনভিপ্রেত।
আমরা দাবি নিয়ে উপাচার্যের সাথে দেখা করতে এসেছি। আমরা তো বলিনি সভা অবরোধ করব। কিন্তু উপাচার্যের শিক্ষকরা এখানে অবস্থান নিয়ে উস্কানিমূলক পরিস্থিতির সৃষ্টি করেছেন।’ অন্যদিকে সিন্ডিকেট সদস্য প্রো-ভিসি (প্রশাসন) অধ্যাপক আমির হোসেন, অধ্যাপক শরীফ এনামুল কবির, অধ্যাপক লায়েক সাজ্জাদ এন্দেল্লাহ, নাজমুল হাসান তালুকদার সিন্ডিকেট সভা বর্জন করেন। উল্লেখ্য, এর আগে এই বছরের ১৭ই এপ্রিল অবরোধ কর্মসূচিতে কেন্দ্র করে হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়েছিলেন জাবির আওয়ামীপন্থী শিক্ষকদের দুই পক্ষ। অন্যদিকে নিয়মতান্ত্রিকভাবে বিএনপিপন্থী শিক্ষক অধ্যাপক ফজলুল করিম পাটোয়ারীকে নিয়োগ দেয়া, বিশ্ববিদ্যালয়ের বিধি অনুযায়ী ইনস্টিটিউটের ডিন/পরিচালক নিয়োগ ও মেয়াদোত্তীর্ণ সকল পর্ষদের নির্বাচনের দাবি ভিসি বরারব চিঠি দিয়ে জাতীয়তাবাদী শিক্ষক ফোরাম। অপরদিকে উপাচার্য কার্যালয়ের নিচে বিভাগ উন্নয়ন ফি বাতিলের দাবিতে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছে জাবি প্রগতিশীল ছাত্র।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর