× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ১৮ নভেম্বর ২০১৮, রবিবার

অধ্যাপক রফিকুলের ব্যতিক্রমী প্রচারণা

ইলেকশন কর্নার

স্টাফ রিপোর্টার, যশোর থেকে | ৯ নভেম্বর ২০১৮, শুক্রবার, ৮:৩৭

নৌকার পক্ষে ব্যতিক্রমী প্রচারণা চালিয়ে আলোচনায় এসেছেন যশোর-২ (চৌগাছা-ঝিকরগাছা) আসনের আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী সাবেক বিদ্যুৎ জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম। মোবাইল এসএমএস, ভয়েস এসএমএসসহ বিভিন্ন ডিজিটাল প্রচারণায় সরকারের উন্নয়ন অগ্রগতির কথা নির্বাচনী এলাকার ঘরে ঘরে পৌঁছে দিচ্ছেন। একান্ত সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছেন তার স্বপ্নের কথা। জনকল্যাণে পরিকল্পনার কথা।
ব্যতিক্রমী ধরনের নির্বাচনী প্রচারণা চালিয়ে নির্বাচনী এলাকায় আলোড়ন সৃষ্টি করেছেন তিনি। নানাভাবে সরকারের উন্নয়ন, অগ্রগতি ও সমৃদ্ধির প্রচার চালাচ্ছেন। প্রতিদিনই দুই উপজেলার কোনো না কোনো গ্রামে তিনি গণসংযোগ করছেন।
অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম বলেন ইতিমধ্যে বর্তমান সরকারের বিভিন্ন উন্নয়ন ও সাফল্য প্রচারে ২০১২ সালের দেয়াল লিখন ও পোস্টার লাগানো আইন মেনে দুই উপজেলার ২২টি ইউনিয়ন পরিষদ ছাড়াও উপজেলা পরিষদ ও পৌরসভায় নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের নিকট নিজস্ব প্যাডে আবেদনপূর্বক অনুমতি নিয়ে ব্যতিক্রমী ব্যানার উত্তোলন করা হয়েছে। এসব ব্যানারে সরকারের উন্নয়ন, অগ্রগতি ও সাফল্যের বিভিন্ন দিক তুলে ধরা হয়েছে।
যা জনসাধারণের মধ্যে ব্যাপক সাড়া ফেলেছে। ১লা  নভেম্বর দেশের মোট ১০৬টি উপজেলায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শতভাগ বিদ্যুতায়নের উদ্বোধন করেছেন। এর মধ্যে চৌগাছা-ঝিকরগাছা উপজেলাও ছিল। এ বিষয়ে তিনি দুই উপজেলার এক লক্ষ বিশ হাজার ৭৪৩ জন গ্রাহকের মোবাইলে ক্ষুদে বার্তা জানিয়ে এসএমএস করেন। অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম বলেন, নির্বাচনী এলাকার মানুষ আমাকে অত্যন্ত ভালোবাসেন। তারা আমার প্রচারণায় বিপুল সাড়া দিচ্ছেন। দলীয় মনোনয়ন পেয়ে আসনটি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনাকে উপহার দিতে চাই।  

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর