× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ১৮ নভেম্বর ২০১৮, রবিবার

তফসিলকে স্বাগত জানিয়েছে আওয়ামী লীগ

প্রথম পাতা

স্টাফ রিপোর্টার | ৯ নভেম্বর ২০১৮, শুক্রবার, ১০:১০

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়নপ্রত্যাশীদেরকে নির্বাচন কমিশনের আচরণবিধি মেনে সব তৎপরতা, গণসংযোগ ও সভা-সমাবেশ করার নির্দেশ দিয়েছেন আওয়ামী 
 লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। গতকাল সন্ধ্যায় ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগের সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে সম্পাদকমণ্ডলীর সভা শেষে সাংবাদিকদের তিনি একথা বলেন। এদিকে নির্বাচনী তফসিল ঘোষণার পর স্বাগত জানিয়েছে আওয়ামী লীগ ও ১৪ দল।

রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় তাদের পক্ষ থেকে আনন্দ মিছিল বের করা হয়। আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ বলেন, নির্বাচনী তফসিল ঘোষণার মধ্য দিয়ে যে ধোঁয়াশা ছিলো তা দূর হয়েছে। নির্বাচনে সব দল অংশ নেবে এমন প্রত্যাশা করে আওয়ামী লীগ।
্‌এদিকে সংবাদ সম্মেলনে ওবায়দুল কাদের বলেন, শুক্রবার সকাল ১০টা থেকে আওয়ামী লীগ সভাপতির ধানমন্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ের নতুন ভবনে আটটি বুথে আট বিভাগের মনোনয়ন ফরম বিক্রি শুরু হবে। এ কার্যক্রম মনিটরিং করবেন বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও সাংগঠনিক সম্পাদকরা।

শিডিউল ঘোষণার পর ফরম বিতরণের শেষ সময় জানানো হবে। তিনি বলেন, গণসংযোগ অভিযান অব্যাহত থাকবে।
বৃহস্পতিবার যেহেতু নির্বাচনের শিডিউল ঘোষণা হচ্ছে, তাই আগামীকাল থেকে এ জনসংযোগ কার্যক্রম জোরদার করা হবে। নির্বাচন কমিশনের আচরণবিধি আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা মেনে চলবেন। আপনাদের মাধ্যমে সে নির্দেশ আমি আওয়ামী লীগের মনোনয়নপ্রত্যাশীদের দিচ্ছি। নির্বাচনকালীন সরকার নিয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, নির্বাচনকালীন সরকারে টেকনোক্রেট থাকছে না এটা আমি সুনিশ্চিত করে বলতে পারি। তবে মন্ত্রিসভার সাইজ ছোট না বড় হবে, সেটা একান্তই প্রধানমন্ত্রীর এখতিয়ার। এটা নিয়ে আগাম কিছু বলবো না। খালেদা জিয়াকে কারাগারে নেয়ায় সংলাপের অগ্রগতি ব্যাহত হবে কিনা, জানতে চাইলে ওবায়দুল বলেন, খালেদা জিয়া হাসপাতালে থাকলেও তিনি প্রিজনার। তিনি জেলে থাকলে যা, চিকিৎসার জন্য বাইরে থাকলেও একই স্ট্যাটাস।

আরেক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘ঐক্যফ্রন্টের রোডমার্চ স্থগিতের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর সংবাদ সম্মেলন স্থগিতের কোনো সম্পর্ক নেই। সংলাপে প্রত্যাশা নিয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, উই আর হোপিং ফর দ্য বেস্ট অ্যান্ড প্রিপায়েরিং ফর দ্য ওরস্ট। তিনি বলেন, আজ  (বৃহস্পতিবার) যেহেতু তফসিল ঘোষণা হচ্ছে, তাই দুই-একদিন পর প্রধানমন্ত্রী সংবাদ সম্মেলন করবেন। সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন- যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ, আব্দুর রহমান, জাহাঙ্গীর কবির নানক, সাংগঠনিক সম্পাদক বাহাউদ্দিন নাসিম, এনামুল হক শামীম, মুহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, প্রচার সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ, শ্রম সম্পাদক হাবিবুর রহমান সিরাজ, দপ্তর সম্পাদক ড. আব্দুস সোবহান গোলাপ, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক অ্যাডভোকেট আফজাল হোসেন, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক ফরিদুন্নাহার লাইলী, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন, শিক্ষা সম্পাদক শামসুন্নাহার চাঁপা, শিল্প সম্পাদক আব্দুস সাত্তার, কেন্দ্রীয় সদস্য মারুফা আক্তার পপি, রিয়াজুল কবির কাওসার প্রমুখ।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
Mohammed islam
৮ নভেম্বর ২০১৮, বৃহস্পতিবার, ১২:০৮

আপনাদের ইচ্ছের প্রতিফলন গঠালেন নির্বাচন কমিশন l জনগণের চাওয়া মূল্য নাই l

অন্যান্য খবর