× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ১০ ডিসেম্বর ২০১৮, সোমবার
রাজশাহী-২

মাঠে স্বতন্ত্র প্রার্থী মাসুদ রানা ও জাতীয় পার্টির ডালিম

ইলেকশন কর্নার

স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী থেকে | ১৩ নভেম্বর ২০১৮, মঙ্গলবার, ৯:২৯

রাজশাহী-২ (সদর) আসনে ১৪ দলের প্রার্থী হিসেবে জোটের অন্যতম শরিক বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক ফজলে হোসেন বাদশা আর বিএনপির একক প্রার্থী হিসেবে সাবেক এমপি তিনবারের মেয়র মিজানুর রহমান মিনুর প্রার্থিতা অনেকটা নিশ্চিত। তবে জোটের বাইরে থেকেও ভোটের প্রস্তুতি চলছে। গতকাল সোমবার বিকালে সাম্যবাদী দলের নেতা মাসুদ রানা নির্বাচন রির্টানিং কর্মকর্তার কার্যালয় থেকে এবং মহানগর শাখা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক খন্দকার মোস্তাফিজুর রহমান ডালিম বনানী চেয়ারম্যানের কার্যালয় থেকে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন। এর বাইরে আওয়ামী লীগের একাধিক প্রার্থী রাজশাহী-২ সদর আসনে দলীয় মনোনয়ন পত্র সংগ্রহ করেছেন।

আওয়ামী লীগের ধানমন্ডী কার্যালয় থেকে মনোনয়ন পত্র সংগ্রহ করেছেন- মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি অধ্যক্ষ শফিকুর রহমান বাদশা ও মহানগর যুবলীগের সভাপতি রমজান আলী। ১৪ দলের ভেতর থেকে এগুলো প্রার্থী হওয়ার কারণে হিসেবে অভ্যন্তরীণ অসন্তোষের কথা শোনা যাচ্ছে।

স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে ভোটের লড়াইয়ে নামা সাম্যবাদী দলের নেতা মাসুদ রানা বলেন, ‘গত ১০ বছরে সদর আসনে নৌকা নিয়ে জিতেও ১৪ দলের নেতাকর্মীর বিন্দুমাত্র মূল্যায়ন করেন নি। ১০ সেকেন্ডের জন্যও বিপদে-আপনে পাশে দাঁড়ান নি। এই অবমূল্যায়নের জবাব দিতেই আমি নির্বাচনে লড়ছি।
নির্বাচিত হলে এই অবমূল্যায়িত সকল নেতাকর্মী সাধারণ জনগণের পাশে থাকবো। জনগণের সাথে রাজনৈতিক দলের মেলবন্ধনের কাজটি করে থাকে তৃণমূলের কর্মীরা। তাদের দাবির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছি। জনগণের প্রতি আমরা অগাধ বিশ্বাস আছে। তারা আমাকে নির্বাচিত করবে।’  

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর