× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৮, রবিবার
হবিগঞ্জ-৩ আসন

মনোনয়নপত্র কিনে আলোচনায় আহমদুল হক

ইলেকশন কর্নার

স্টাফ রিপোর্টার, হবিগঞ্জ থেকে | ২১ নভেম্বর ২০১৮, বুধবার, ৮:৫৮

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে হবিগঞ্জে চলছে চমকের পর চমক। সকাল-বিকেল আসছে গরম গরম খবর। বিশেষ করে নির্বাচনকে ঘিরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এখন সবার চোখ। গেল কয়েকদিন হবিগঞ্জসহ সারাদেশের আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে ছিল ড. রেজা কিবরিয়ার নাম। আওয়ামী লীগ সরকারের সাবেক অর্থমন্ত্রীর ছেলে ধানের শীষ নিয়ে নির্বাচন করাকে নিয়ে ছিল ব্যাপক চাঞ্চল্য। এ চমক কাটতে না কাটতেই হবিগঞ্জ-৩ আসনে নির্বাচনের মনোনয়ন কিনে নতুন চমক সৃষ্টি করেছেন সদর উপজেলার বারবার নির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান সৈয়দ আহমদুল হক। তাকে নিয়ে হবিগঞ্জ-৩ আসনে দীর্ঘদিন থেকেই চলছিল নানা জল্পনা-কল্পনা। সর্বজনগ্রাহ্য এ জনপ্রতিনিধি কোন দল থেকে নির্বাচন করছেন তা নিয়ে সাধারণ ভোটারদের মধ্যে চলছিল নানা আলোচনা।
তবে শেষ পর্যন্ত তিনি নির্বাচন করছেন কিনা তা নিয়েও ছিল যথেষ্ট সংশয়। তবে সম্প্রতি তিনি এ আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন ক্রয় আবারো অলোচনায় আসেন। তিনি জেলা সদরের এ আসনে নির্বাচনের সিদ্ধান্ত নেয়ায় আবার নতুন করে চলছে হিসাব-নিকাশ। তবে তিনি বড় কোন দল নাকি শেষ পর্যন্ত স্বতন্ত্র হিসেবে নির্বাচন করবেন এর উপর চলবে নির্বাচনের সমীকরণ। তাকে নিয়ে স্থানীয় ভোটারদের মাঝে চলছে নানা আলোচনা। এলাকায় চাউর হচ্ছে ড. কামাল হোসেন নাকি ঐক্যফ্রন্ট থেকে নির্বাচনের জন্য গণফোরামে যোগ দিতে তাকে প্রস্তাব দিয়েছেন। আবার কেউ কেউ বলছেন তিনি বিএনপি থেকেই নির্বাচন করছেন। তবে এ ব্যাপারে এখনই মুখ খুলতে নারাজ আহমদুল হক। সময়মত তিনি সবকিছু জানাবেন বলে জানিয়েছেন তার সমর্থকরা।
সদর আসনের ৪ বারের নির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান সৈয়দ আহমদুল হক। সাদা মনের একজন মানুষ হিসেবে তিনি সর্বমহলের আস্থা অর্জন করেছেন। সালিশ বৈঠকের ন্যায় বিচারক হিসেবেও তার রয়েছে বিশেষ খ্যাতি। বিশেষ করে এলাকার হাজার হাজার ভক্ত ‘সৈয়দ সাব’ বলতে অন্ধ ভক্ত।
তার এক কথায় প্রাণ দিয়ে দিতেও রাজি অসংখ্য ভক্তরা। এক সময় জাতীয় পার্টির রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত ছিলেন আহমদুল হক। তবে বর্তমানে তিনি কোন দলের রাজনীতিতেই জড়িত নেই বর্ষিয়ান এ নেতা। আর যে কারণে হবিগঞ্জের রাজনীতিতে নানামুখী আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে সৈয়দ আহমদুল হক।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
মুজিবুর রহমান
২২ নভেম্বর ২০১৮, বৃহস্পতিবার, ১১:১৮

নির্বাচনের মাঠে উনার মত মানুষের দরকার। আশা করি যেকোন দলই উনাকে ব্যবহার করে আসনটি নিজেদের দলের করে নিতে পারবে।

হাফিজ জামিল
২১ নভেম্বর ২০১৮, বুধবার, ৬:২৪

বর্তমান সময়ে বাংলাদেশের প্রত্যেক আসনে এরকম নেতার দরকার ছিল।

অন্যান্য খবর