× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৮, শুক্রবার
অরিত্রির আত্মহত্যা

ভিকারুননিসার শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ, অধ্যক্ষের পদত্যাগ দাবি

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার | ৪ ডিসেম্বর ২০১৮, মঙ্গলবার, ৩:১৪

ভিকারুননিসা নূন স্কুলের শিক্ষার্থী অরিত্রির আত্মহত্যার ঘটনায় বিক্ষোভ করেছে সহপাঠীরা। এ সময় তারা স্কুলের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ নাজনীন ফেরদৌসের পদত্যাগ দাবি করেন। আজ মঙ্গলবার সকাল ১০টা থেকে বিভিন্ন ধরনের প্ল্যাকার্ড নিয়ে তারা বিক্ষোভ করেন। স্কুলের বাইরে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে অভিভাবকরাও বিক্ষোভে অংশ নেন।
তারা এ ঘটনায় দায়ীদের বিচার দাবি করেন। মোবাইল ফোনের মাধ্যমে নকলের অভিযোগ তুলে বাবা-মাকে ডেকে অপমান ও টিসি দেয়ার কথা বলায় রাজধানীর শান্তিনগরে নবম শ্রেণির ছাত্রী অরিত্রি আত্মহত্যা করেন।
স্কুলের অধ্যক্ষ অরিত্রির বাবা-মাকে ডেকে মেয়ের সামনেই অপমান করে বলেন, সিদ্ধান্ত হয়েছে অরিত্রিকে নকলের অভিযোগে প্রতিষ্ঠান থেকে বের করে দেয়া হবে। এ অপমান সহ্য করতে না পেরে বাসায় এসে আত্মহত্যার পথ বেছে নেন অরিত্রি। আত্মহত্যার কিছুক্ষণ আগে সে তার মাকে জানায়, ‘মা এ লজ্জা নিয়ে বাঁচতে চাই না।’ তার ছোট বোনও একই স্কুলে পড়ে।
অরিত্রির সহপাঠীরা জানান, আমরা ঘটনার সুষ্ঠু বিচার চাই। অধ্যক্ষের খামখেয়ালির কারণেই মরতে হয়েছে অরিত্রিকে, আমরা তার পদত্যাগ চাই।
অভিভাবকরা বলেন, এটি একটি দুঃখজনক ও নিন্দনীয় ঘটনা।
স্কুল কর্তৃপক্ষের খামখেয়ালির কারণেই এ ঘটনা ঘটেছে। শিক্ষার্থী যদি নকল করে থাকে, সে জন্য সে ক্ষমা চেয়েছে। পা ধরেও ক্ষমা চেয়েছে। এ স্কুলের শিক্ষকরা মানবিক না। তারা শিক্ষার্থীদের সঙ্গে অমানবিক আচরণ করেন। এমনকি কোনো প্রয়োজনে অধ্যক্ষের সঙ্গে দেখা কিংবা কথা বলা যায় না। অধ্যক্ষ তাদের কোনো প্রয়োজনের কথা শুনতে চান না।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর