× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৮, শুক্রবার

কুড়িগ্রাম-২ আসনে ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে প্রতিযোগিতা

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, কুড়িগ্রাম থেকে | ৫ ডিসেম্বর ২০১৮, বুধবার, ৯:৩১

কুড়িগ্রাম-২ আসনে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের চূড়ান্ত মনোনয়ন নিয়ে তৈরি হয়েছে এক প্রতিযোগিতা। এই আসনে মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই শেষে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থীদের মধ্যে বৈধ হয়েছে বিএনপি ও গণফোরামের চার জনের প্রার্থিতা। তাদের মধ্যে বিএনপির দুই প্রার্থী হলেন- কুড়িগ্রাম জেলা বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক, ছাত্রদল ও যুবদলের সাবেক জেলা সভাপতি সোহেল হোসনাইন কায়কোবাদ এবং কুড়িগ্রাম জেলা বিএনপির সিনিয়র সহ সভাপতি সাবেক পৌর মেয়র আবু বকর সিদ্দিক। অন্যদিকে গণফোরামে সদস্য যোগ দেয়া দুই নেতা হলেন- জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আমসা আমিন এবং জাতীয় পার্টি নেতা মেজর (অব.) আব্দুস সালাম। ফলে কার ভাগ্যে জুটবে কাঙ্ক্ষিত ধানের শীষ প্রতীক- এই নিয়ে তৈরি হয়েছে প্রতিযোগিতা। স্থানীয় বিএনপি নেতাকর্মীরা বলছেন, তারা ধানের শীষ প্রতীকে বিএনপির প্রার্থী চান। যারা দীর্ঘদিন ধরে মাঠে কাজ করছেন, আন্দোলন সংগ্রামে নেতৃত্ব দিচ্ছেন, দলের নেতাকর্মী ও সাধারণ মানুষের সঙ্গে কাজ করছেন তেমন একজনকেই এ আসনে তারা বিএনপির প্রার্থী হিসেবে চান। কুড়িগ্রাম জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক নুর ইসলাম নুরু জানান, ১৯৭৯ সালের নির্বাচনের পর বিভিন্ন সময় অন্য দলের প্রার্থী দিয়ে আমাদের নির্বাচন করতে হয়েছে।
এখন সময় এসেছে আমাদের নিজস্ব প্রার্থী দিয়ে নির্বাচন করার। ধানের শীষের পক্ষে যে জোয়ার সৃষ্টি হয়েছে সে ফসল আমরা ঘরে তুলতে চাই। এখানে দলের ত্যাগী নেতা সোহেল হোসনাইন কায়কোবাদের পক্ষে তৃণমূলের নেতাকর্মীরা ঐক্যবদ্ধ রয়েছেন। জেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক নাদিম আহমেদ জানান, সদ্যগণফোরামে যোগ দিয়ে এখন ধানের শীষ প্রতীক প্রত্যাশী দুই নেতাই বিগত জেলা পরিষদ নির্বাচনে বর্তমান জাতীয়পার্টির প্রার্থীর পক্ষে কাজ করেছেন। আমরা এবারের নির্বাচনে নিজেদের দলের প্রার্থী চাই। কুড়িগ্রাম জেলা বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক ও জাসাস নেতা আলতাফ হোসেন বিএনপির কেন্দ্রীয় হাইকমান্ডের দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলেন, আমরা তৃণমূলের নেতাকর্মীরা ঐক্যবদ্ধ আছি। আপনারা সঠিক প্রার্থী নির্ধারণ করে ধানের শীষের বিজয়কে সুনিশ্চিত করুন। এদিকে এলাকার ভোটাররা বলছেন, আমরা যাদের কাছে পাই তেমন নেতাকে প্রার্থী হিসেবে দেখতে চাই। অতীতে নবাগত প্রার্থীকে ভোট দিয়ে এলাকার যেমন কোন উন্নয়ন হয়নি। ভোট নিয়ে তারা ঢাকায় যাওয়ার পর এলাকার মানুষের কোন খোঁজ খবর রাখেনি।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর