× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৮, শুক্রবার

২০২১ সালে হবে ষষ্ঠ আদমশুমারি

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার | ৫ ডিসেম্বর ২০১৮, বুধবার, ৭:২৭

২০২১ সালে ষষ্ঠবারের মতো আদমশুমারি করতে যাচ্ছে বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো (বিবিএস)। এবারই প্রথম প্রবাসীদের শুমারিতে গণনায় যুক্ত করা হচ্ছে । সংস্থাটি ইতিমধ্যে কার্যক্রম শুরু করেছে বলে জানা  গেছে।

বুধবার  রাজধানীর আগারগাঁওয়ে এ উপলক্ষে ‘পপুলেশন এন্ড হাউজিং সেনসাস ২০২১: প্রসপেক্ট এন্ড চ্যালেঞ্জ’ শীর্ষক এক কর্মশালার আয়োজন করে পরিসংখ্যান ব্যুারো। সংস্থাটির পক্ষ থেকে জানানো হয়, বাংলাদেশে প্রথমবার ১৯৭৪ সালে আদমশুমারি অনুষ্ঠিত হয়েছিল। পরবর্তীতে ১৯৮১, ১৯৯১, ২০০১ এবং সর্বশেষ ২০১১ সালে আদমশুমারি অনুষ্ঠিত হয়েছিল।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে পরিসংখ্যান ও তথ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগের সচিব সৌরেন্দ্র নাথ চক্রবর্তী বলেন, প্রতি দশ বছর পর পর বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো আদমশুমারি ও গৃহগণনা কার্যক্রম করে আসছে। পরিসংখ্যান আইন ২০১৩ অনুযায়ী যা এখন জনশুমারি নামে পরিচিত হবে।
১৯৭৪ সালে দেশে প্রথম আদমশুমারি অনুষ্ঠিত হয় এবং সর্বশেষ ২০১১ সালে পঞ্চম জনশুমারি (আদমশুমারি) অনুষ্ঠিত হয়। এর ধারাবাহিকতায় আগামী ২০২১ সালে পরবর্তী জনশুমারি অনুষ্ঠিত হবে।

শুমারিটি সঠিকভাবে পরিচালনার জন্য প্রথমবারের মতো একটি মাস্টার প্ল্যান তৈরি করা হয়েছে। সরাসরি সাক্ষাৎকারের ভিত্তিতে তথ্য সংগ্রহের পাশাপাশি মোবাইল ফোন, ট্যাব, কল সেন্টার ইত্যাদির মাধ্যমে তথ্য সংগ্রহ করা হবে। যারা আদমশুমারিতে তথ্য দেবেন তারা পরবর্তীতে এসএমএস এর মাধ্যমে জানতে পাবেন তাদের গণনা করা হয়েছে কিনা।

পরিসংখ্যান ব্যুরোর মহাপরিচালক কৃষ্ণা গায়েনের সভাপতিত্বে কর্মশালায় প্রধান অতিথি ছিলেন, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মুখ্য সচিব মো: নজিবুর রহমান। বিশেষ অতিথি ছিলেন, পরিসংখ্যান ও তথ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগের সচিব সৌরেন্দ্রনাথ চক্রবর্তী এবং ইউএনএফপিএ-এর বাংলাদেশ প্রতিনিধি ড. আশা তরকেলশন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর