× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ১৯ ডিসেম্বর ২০১৮, বুধবার
বরিশাল-৪

বরিশালের পঙ্কজ দেবনাথের প্রার্থিতা নিয়ে পাল্টাপাল্টি

এক্সক্লুসিভ

স্টাফ রিপোর্টার, বরিশাল থেকে | ৬ ডিসেম্বর ২০১৮, বৃহস্পতিবার, ৯:১০

বরিশাল-৪ (হিজলা-মেহেন্দীগঞ্জ) আসনের আওয়ামী লীগের এমপি প্রার্থী পঙ্কজ নাথের বিরুদ্ধে দণ্ড নিয়ে চলছে তোলপাড়। সংবাদ সম্মেলন, পাল্টা সম্মেলনে পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে উঠছে ক্রমশ। দুর্নীতি মামলায় দণ্ডিত হওয়ার তথ্য গোপনের অভিযোগ করেছেন ওই আসনের বিএনপির প্রার্থী মেজবাহউদ্দিন ফরহাদ। তিনি দাবি করেছেন, এমন তথ্য-উপাত্ত দিয়ে রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগ করলেও কোনো ব্যবস্থা নেয়া হয়নি। এজন্য তিনি উচ্চাদলতে যাবার হুমকি দিয়েছেন। অপরদিকে পঙ্কজ নাথ এ অভিযোগ মিথ্যা বলে দাবি করেছেন।

মঙ্গলবার সকালে নগরীর কালিবাড়ী রোডস্থ নিজ বাসভবনে নির্বাচনী এলাকা মেহেন্দীগঞ্জের নেতাকর্মীদের নিয়ে এক কর্মিসভা করেন বরিশাল-৪ আসনে বিএনপির এমপি প্রার্থী মেজবাহ উদ্দিন ফরহাদ। সভায় মেজবাহ বলেন, সংসদ সদস্য পঙ্কজ নাথ একজন দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি।
তিনি তার হলফনামায় তথ্য গোপন করেছেন। পঙ্কজ আদালত কর্তৃক দুদকের মামলায় স্বামী-স্ত্রীসহ যে দণ্ডপ্রাপ্ত হয়েছিলেন তা গোপন করে মনোনয়ন দাখিল করে কি করে বৈধতা পান। দণ্ডপ্রাপ্ত পঙ্কজ নাথকে সবকিছু জেনে শুনে রিটার্নিং কর্মকর্তা বৈধতা দিয়েছেন। যদিও এ বিষয়ে সোমবার রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগ দিয়েছিলেন তিনি। মেজবাহ বলেন, আমরা এ ব্যাপারে নির্বাচন কমিশন বরাবর আপত্তি দাখিল করবো। সেখানে পঙ্কজের মনোনয়ন বাতিল করা না হলে উচ্চ আদালতে যাব।

বরিশাল উত্তর জেলা বিএনপির দপ্তর সম্পাদক নুরুল আলম রাজু বলেন, ঢাকার বিশেষ জজ আদালতে-১ এ একটি দুর্নীতি মামলায় (নং-২/২০০৭ইং) পঙ্কজ নাথের ১০ বছরের সশ্রম কারাদণ্ডের তথ্য হলফনামায় গোপন করেছেন। দণ্ডপ্রাপ্ত পঙ্কজ দেবনাথকে প্রশাসন সব কিছু জেনে শুনে এবং লিখিত অভিযোগ দেয়ার পরও রিটার্নিং অফিসার এসএম অজিউর রহমান কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি। পঙ্কজের মনোনয়ন বাতিল না করলে উচ্চ আদালতে যাব।
অবশ্য বরিশাল-৪ আসনের আওয়ামী লীগ প্রার্থী পঙ্কজ নাথ সাংবাদিকদের জানান, তিনি ওই মামলায় উচ্চাদালত থেকে বেকসুর খালাস পেয়েছেন। এ ব্যাপারে বরিশাল রিটার্নিং কর্মকর্তা জেলা প্রশাসক এসএম অজিয়র রহমান জানান, মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাইকালে কোনো প্রার্থীর বিরুদ্ধে কেউ কোনো অভিযোগ করেননি। এর সুরাহা চাইতে হলে এখন কমিশনে অভিযোগ দিতে হবে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর