× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ১৯ ডিসেম্বর ২০১৮, বুধবার

ওপেক ছাড়ার পেছনে রাজনৈতিক কারণ নেই- কাতারি মন্ত্রী

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ৬ ডিসেম্বর ২০১৮, বৃহস্পতিবার, ৫:৩৭

 রাজনৈতিক কারণে ওপেক ছারছে না কাতার। এ কথা জানিয়েছেন, দেশটির জ্বালানি মন্ত্রী সাদ আল-কাবি। বুধবার সিএনবিসি চ্যানেলকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি এ তথ্য জানান। তিনি বলেন, ওপেক ছেড়ে কাতারের বেড়িয়ে আসা স¤পূর্ন কৌশলগত সিদ্ধান্ত, এরমধ্যে রাজনৈতিক কোনো কারণ নেই।
সোমবার জ্বালানী স¤পদশালী উপসাগরীয় দেশটি ঘোষণা দেয় আগামী বছর জানুয়ারিতে তারা ওপেক থেকে বেড়িয়ে আসবে। এর মাধ্যমে প্রায় অর্ধশতাব্দি ধরে থাকা এক সদস্য রাষ্ট্রকে হারাতে চলেছে ওপেক। বিশ্বব্যাপি তেল উৎপাদন ও রপ্তানীকারক দেশগুলোর সংগঠন ওপেক। আন্তর্জাতিক বাজারে তেলের দাম নির্ধারনে গুরুত্বপূর্ন ভ’মিকা পালন করে সংস্থাটি।

কাতারের প্রতিবেশি সুন্নি আরব রাষ্ট্রগুলো দেশটিকে গত ১৮ মাস ধরে অবরুদ্ধ করে রেখেছে। গত বছরের জুনে সৌদি-আমিরাত জোট কাতারের অর্থনীতিতে চাপ সৃষ্টির লক্ষ্যে এ অবরোধ আরোপ করে। দেশগুলো কাতারের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসবাদে মদদ দেয়ার অভিযোগ আনে। এ বিষয়ে সিএনবিসিকে সাদ বলেন, আমরা ওপেকে রেশারেশি করছি না আর। আমিই আমীরকে ওপেক থেকে বেড়িয়ে আসার পরামর্শ দিয়েছি। আমি জানি মিডিয়া কাতারের এ সিদ্ধান্তকে রাজনৈতিক মোড়কে দেখাতে চাইবে। এমনকি কাতারের মিডিয়াগুলোও একই কাজ করছে। কিন্তু তারা সত্যিটা বুঝতে পারছে না। সাক্ষাৎকারের এক পর্যায়ে তাকে জিজ্ঞেস করা হয়, ওপেকে ক্রমাগত প্রভাব হারাচ্ছে কাতার- এ জন্যই ওপেক ছারছে কিনা? এর জবাবে আল-কাবি বলেন, আমরা এমনিতেই ছোট সদস্য। আমার মনে হয় না, কাতারেরর কথার খুব গুরুত্ব দেয়া হয়।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর