× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৮, রবিবার

কুমিল্লার এক মামলায় খালেদা জিয়ার জামিন বহাল

শেষের পাতা

স্টাফ রিপোর্টার | ৭ ডিসেম্বর ২০১৮, শুক্রবার, ১০:৩০

কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামের বিশেষ ক্ষমতা আইনে দায়ের করা নাশকতার মামলায় কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে হাইকোর্টের দেয়া জামিন স্থগিত হয়নি আপিল বিভাগে। ফলে মামলাটিতে তার জামিন বহাল থাকলো। এ ছাড়া জামিনের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রপক্ষকে ১৩ই ডিসেম্বরের মধ্যে লিভ টু আপিল (আপিলের অনুমতি) করার নির্দেশ দিয়েছেন সর্বোচ্চ আদালত।
জামিন স্থগিত চেয়ে রাষ্ট্রপক্ষের করা আবেদনের ওপর শুনানি শেষে গতকাল প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বে আপিল বিভাগের সাত বিচারপতির নিয়মিত বেঞ্চ এ আদেশ দেন।
আদালতে খালেদা জিয়ার পক্ষে শুনানি করেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী এ জে মোহাম্মদ আলী। তার সঙ্গে ছিলেন ব্যারিস্টার কায়সার কামাল। অপরদিকে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। সঙ্গে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল ড. মো. বশির উল্লাহ।
গত ২৮শে নভেম্বর কুমিল্লার এ মামলায় খালেদা জিয়াকে জামিন দেন বিচারপতি একেএম আসাদুজ্জামান ও বিচারপতি এসএম মজিবুর রহমান সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্টের দ্বৈত বেঞ্চ। এ জামিন আদেশ স্থগিত চেয়ে আবেদন করে রাষ্ট্রপক্ষ। পরে চেম্বার জজ আদালত জামিন স্থগিত না করে আপিল বিভাগের নিয়মিত বেঞ্চে শুনানির জন্য পাঠিয়ে দেন।
এর ধারাবাহিকতায় গতকাল শুনানি শেষে এ আদেশ দেয়া হলো।
এর আগে গত ১৩ই সেপ্টেম্বর কুমিল্লা জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক কে এম সামছুল আলম খালেদা জিয়ার জামিন আবেদন নামঞ্জুর করেন। এর আগে গত ১৪ই অক্টোবর খালেদা জিয়ার পক্ষে আবেদন যথাযথ হয়নি উল্লেখ করে অ্যাটর্নি জেনারেল আপত্তি দিলে আদালত যথাযথ প্রক্রিয়ায় আপিল করার নির্দেশ দেন। পরের দিন ১৫ই অক্টোবর খালেদা জিয়ার পক্ষে এ আপিল দায়ের করেন তার আইনজীবীরা।
২০১৫ সালের ২৫শে জানুয়ারি ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের চৌদ্দগ্রাম পৌরসভার হায়দারপুল এলাকায় একটি কাভার্ড ভ্যানে আগুন দেয়ার ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় পরের দিন অর্থাৎ ২৬শে জানুয়ারি চৌদ্দগ্রাম থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) নুরুজ্জামান হাওলাদার বাদী হয়ে বিএনপি চেয়ারপারসনসহ ২০দলীয় জোটের স্থানীয় ৩২ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে বিশেষ ক্ষমতা আইনে এই মামলা করেন। মামলায় খালেদা জিয়াকে হুকুমের আসামি করা হয়।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর