× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ১৮ জানুয়ারি ২০১৯, শুক্রবার

বিজেপির রথযাত্রায় মমতার আপত্তি, আদালতের হস্তক্ষেপ

ভারত

কলকাতা প্রতিনিধি | ৮ ডিসেম্বর ২০১৮, শনিবার, ১২:৪৯

পশ্চিমবঙ্গে এক মাসজুড়ে তিনটি রথের মাধ্যমে গণতন্ত্র বাঁচাও যাত্রার আয়োজন করেছে বিজেপি। কিন্তু সেই যাত্রায় রাজ্য প্রশাসন অনুমতি দেয় নি। এই বিরোধ শেষ পর্যন্ত আদালতে গড়ালে কলকাতা হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ শুক্রবার এক নিদের্শে পশ্চিমবঙ্গ সরকারের তিন সর্বোচ্চ প্রতিনিধিকে বিজেপির তিন প্রতিনিধির সঙ্গে বসে আগামী বুধবারের মধ্যে রথযাত্রার বিষয়টি চূড়ান্ত করতে হবে বলে জানিয়েছেন। সেইসঙ্গে গত বৃহষ্পতিবার তপোব্রত চক্রবর্তীর সিঙ্গেল বেঞ্চ ৯ জানুয়ারি পর্যন্ত রাজ্যের কোথাও বিজেপি রথযাত্রা করতে পারবে না বলে যে নির্দেশ দিয়েছিলেন তা খারিজ করে দিয়েছেন। সিঙ্গেল বেঞ্চের নির্দেশকে  চ্যালেঞ্জ করে ডিভিশন বেঞ্চে আবেদন করেছে রাজ্য বিজেপি। শুক্রবার দিনভর শুনানির শেষে রথযাত্রায় আপাতত অনুমতি না দিলেও উভয়পক্ষকে সমন্বয় রেখে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে পরামর্শ দিয়েছেন। এদিন দুপুরে অবশ্য বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ মমতার সরকারকে প্রবল আক্রমণ করে বলেছেন, পশ্চিমবঙ্গে তিনটি যাত্রাই হবে। তিনি বলেন, বিজেপির সাফল্য দেখে মমতা ভয় পেয়ে গিয়েছেন।  আগামী লোকসভা নির্বাচনের আগে পশ্চিমবঙ্গে রথযাত্রার মাধ্যমে বিজেপি পুরোদমে প্রচারে নামতে চেয়েছে।
ইতিমধ্যেই বিজেপির সভাপতি রাজ্যে ২৩টি লোকসভা আসনে জয় নিশ্চিত করার নির্দেশ দিয়েছেন দলীয় কর্মী ও স্থানীয় নেতাদের। রাজ্যে সাম্প্রতিক নির্বাচনগুলিতে বিজেপির সমর্থন ৩ শতাংশ থেকে বেড়ে ২৪ শতাংশে পৌঁছানোয় বিজেপি নেতৃত্ব খুবই উৎসাহিত। আগামী লোকসভা নির্বাচনে বিজেপি বেশি সংখ্যক আসন পাওয়ার লক্ষ্যেই ঝাঁপিয়ে পড়তে চলেছে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীও রাজ্যকে গুরুত্ব দিয়ে এক মাসের মধ্যে চারটি জনসভায় ভাষণ দেবেন বলে জানা গেছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
Kazi
১১ ডিসেম্বর ২০১৮, মঙ্গলবার, ১০:৪৩

অমিত শাহর রুক্ষস্বভাবের আচরণ বিজেপির পতন ডেকে আনবে।

অন্যান্য খবর