× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২৫ জুন ২০১৯, মঙ্গলবার

মন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রী ও এমপি’র প্রচারণায় গাজীপুরের মেয়র জাহাঙ্গীর

এক্সক্লুসিভ

ইকবাল আহমদ সরকার, গাজীপুর থেকে | ২৫ ডিসেম্বর ২০১৮, মঙ্গলবার, ৯:২৩

গাজীপুর সিটি মেয়র মহানগর আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর আলম দলের এমপি প্রার্থীদের পক্ষে রয়েছেন নির্বাচনী মাঠে। সিটি এলাকায় থাকা গাজীপুর-১ আসনের প্রার্থী মুক্তিযুদ্ধমন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক, গাজীপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য জাহিদ আহসান রাসেলের জন্য প্রায় প্রতিদিনই নামছেন মাঠে। নগরের দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি বিশেষ করে বিকাল ও রাতে প্রার্থীদের সঙ্গে থাকছেন গণসংযোগ ও পথসভায়। আলাদাভাবেও তিনি নির্বাচনী সভায়, ওঠান বৈঠক, নির্বাচনী সভায় বক্তব্য রাখেছেন। ভোট চাইছেন নৌকা প্রতীকে। গাজীপুর-৫ আসনের প্রার্থী প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকির জন্যও তিনি নির্বাচনী মাঠে আছেন নগরের পূবাইল থানা এলাকার ওয়ার্ডগুলোতে। এই তিনটি আসনের নির্বাচনী এলাকা রয়েছে গাজীপুর সিটি করপোরেশনের ৫৭টি ওয়ার্ডে। এই সিটিতে ভোটার সংখ্যা প্রায় সাড়ে ১১ লাখ।
নির্বাচনী প্রতীক বরাদ্দের পর থেকে, এমনকি তারো আগে থেকে সিটি মেয়র জাহাঙ্গীর আলম নির্বাচনী মাঠে রয়েছেন মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেলের সঙ্গে।
বিভিন্ন সভায় মন্ত্রী তার বক্তব্যে নিজের জন্য ভোট চাওয়ার পাশাপাশি তুলে ধরছেন সিটি মেয়রের হাত ধরে কিভাবে গাজীপুর মহানগর হাজারো কোটি টাকার উন্নয়নে যাচ্ছে। আর এসব সভায় মেয়র জাহাঙ্গীর আলম আগামী দিনে এই নগরকে পরিকল্পিত ও উন্নত নগর গড়তে, আবারো আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন সরকার গঠন ও সিটির ১ থেকে শুরু করে ১৮ নম্বর ওয়ার্ডের উন্নয়নের স্বার্থে এমপি হিসেবে আ ক ম মোজাম্মেল হকের প্রয়োজনীয়তার কথা তুলে ধরছেন জনতার সামনে। ভোট চাইছেন নৌকা প্রতীকে। মেয়র জাহাঙ্গীর আলম ভোট দিয়ে মোজাম্মেল হককে বিজয়ী করার আহ্বান জানিয়ে বলছেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাদের প্রিয় মোজাম্মেল ভাইকে সিনিয়র মন্ত্রীর পদমর্যাদা দিয়েছেন। ওনার দক্ষতা, সততা দেখে মুক্তিযুদ্ধমন্ত্রীর পাশাপাশি ধর্মমন্ত্রীর দায়িত্বও দেয়া হয়েছে। কারণ ওনি কাজের লোক। দিন-রাত কাজ করেন। আপনাদের-আমাদের সুখে-দুঃখে পাশে থাকেন। মেয়র নির্বাচনী সভা, পথসভা, নির্বাচনী প্রচার করেছেন বাসন, কোনাবাড়ি, কাশিমপুর থানার প্রায় সবগুলো ওয়ার্ডে। একইভাবে নগরের সদর, গাছা, টঙ্গী পূর্ব ও পশ্চিম থানা এলাকার বিভিন্নস্থানে নির্বাচনী তৎপরতায় রয়েছেন গাজীপুর-২ আসনের প্রার্থী শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টারের ছেলে জনপ্রিয় প্রার্থী জাহিদ আহসান রাসেলের পক্ষে। নির্বাচনে পুরোদমে দলীয় নেতাকর্মীদের সম্পৃক্ত করতে আলাদাভাবে মহানগর আওয়ামী লীগের বিশেষ নির্বাচনী সভা করে মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে সিটি মেয়র জাহাঙ্গীর আলম দিয়েছেন নানা নির্দেশনা। এই এলাকাগুলোর ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে আয়োজিত সভায় প্রার্থী রাসেলের সঙ্গে কিংবা আলাদাভাবেও উপস্থিত হয়ে ভোট চাচ্ছেন, উজ্জীবিত করছেন দলের স্থানীয় নেতাকর্মীদের। রাত পর্যন্ত মাঠে থেকে ভোটারদের উদ্দেশ্যে তিনি বলছেন, নগরবাসীর সুখের জন্য একটি আধুনিক পরিকল্পিত শহর করতে চাই। এজন্য দরকার যারা দিন-রাত কাজ করে। বিগত দিনে দেখেছি যিনি নির্মোহ হয়ে জনগণের জন্য পিতার মতো কাজ করেন তিনি হলেন, জাহিদ আহসান রাসেল এমপি। এই অঞ্চলে দরকার জাহিদ আহসান রাসেলকে। আমাদের অপজিটে যিনি প্রার্থী হয়েছেন তাকে এলাকাবাসী চিনে না। ওনার বড় ভাইকে সবাই চিনে, তারপরও এর আগে নির্বাচনে দাঁড়িয়ে আমাদের সঙ্গে পরাজিত হয়েছে। রাষ্ট্র পরিচালনায় দরকার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে। তিনিই গাজীপুরকে সিটি করপোরেশন বানিয়েছেন, উন্নয়নের জন্য কোটি কোটি টাকা বরাদ্দ দিয়েছেন। গত আড়াই বছরে আমাদের সিটির উন্নয়নের জন্য ৮ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। কাজকে বাস্তবায়নের জন্য দরকার পরীক্ষিত মানুষ দরকার। আমাদের পরীক্ষিত মানুষ রাসেলকে ভোট দিতে হবে। আমি সিটিকে এগিয়ে নিতে সংসদ সদস্যের সঙ্গে মিলে মিশে কাজ করতে চাই। আমি সবাইকে অনুরোধ করবো আগামী কয়েকটি দিন বাড়ি বাড়ি গিয়ে নৌকার পক্ষে ভোট চাইতে। লাখ লাখ ভোটের ব্যবধানে আমাদের নৌকার প্রার্থীকে বিজয়ী করতে হবে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর