× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২৫ জুন ২০১৯, মঙ্গলবার

হয়রানি বন্ধ করা না হলে স্বেচ্ছায় কারাবরণের ঘোষণা বিএনপি প্রার্থীর

এক্সক্লুসিভ

স্টাফ রিপোর্টার, রংপুর থেকে | ২৫ ডিসেম্বর ২০১৮, মঙ্গলবার, ৯:২৩

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপির নেতাকর্মীদের পুলিশি হয়রানি ও আওয়ামী লীগের হিংসাত্মক রাজনীতি বন্ধ করা না হলে স্বেচ্ছায় কারাবরণের ঘোষণা দিয়েছেন রংপুর-৪ (পীরগাছা-কাউনিয়া) আসনের বিএনপি প্রার্থী এমদাদুল হক ভরসা। তিনি গতকাল বিকালে নগরীর নর্থ ভিউ হোটেল মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের অভিযোগ করে বলেন, আমার বাবা রহিম উদ্দিন ভরসা ও চাচা করিম উদ্দিন ভরসা দীর্ঘদিন ধরে পীরগাছা-কাউনিয়া আসনে রাজনীতি করে এসেছেন। তারা সংসদ সদস্যও ছিলেন। তাদের বয়স হওয়ায় এ আসনে আমাকে নির্বাচনী লড়াইয়ে নামিয়েছেন। আমি ভোটারদের ব্যাপক সাড়াও পাচ্ছি। তবে আমার প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগের প্রার্থীর লোকজন বিভিন্নভাবে বিএনপির নেতাকর্মীদের হয়রানি ও ভয়-ভীতি প্রদর্শন করছে। আমাদের সাঁটানো পোস্টার ছিঁড়ে ফেলা, অফিস ভাঙচুর, নেতাকর্মীদের মারধর করেছে। এ ব্যাপারে আমরা পুলিশ প্রশাসনসহ জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তাকে মৌখিক, লিখিতভাবে একাধিকবার জানালেও তারা কোনো কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ করেননি।

এমদাদুল হক ভরসা বলেন, আওয়ামী লীগ প্রার্থী পুলিশের মাধ্যমে আমাদের নেতাকর্মীদের বাড়িতে বাড়িতে তল্লাশি করে আতঙ্ক তৈরি করেছে। এছাড়া নির্বাচনী কার্যক্রমে উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে নেতাকর্মীদের নামে হয়রানিমূলক মামলা দেয়া হচ্ছে। তিনি আওয়ামী লীগের দলীয় নেতাকর্মী ও বহিরাগত সন্ত্রাসীদের দিয়ে পীরগাছা-কাউনিয়া ও হারাগাছ পৌরসভাসহ অধিকাংশ কেন্দ্র দখলসহ ভোট কারচুপির শঙ্কা প্রকাশ করেন। সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, পীরগাছা উপজেলা বিএনপির সভাপতি আমিনুল ইসলাম রাঙ্গাসহ বিএনপি নেতাকর্মীরা ।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর