× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ১৯ জুন ২০১৯, বুধবার

ব্যারিস্টার মইনুলের জামিন বহাল

এক্সক্লুসিভ

স্টাফ রিপোর্টার | ২৫ ডিসেম্বর ২০১৮, মঙ্গলবার, ৯:৪৫

সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা ও সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনকে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় হাইকোর্টের দেয়া ছয় মাসের জামিন বহাল রেখেছেন আপিল বিভাগের চেম্বার জজ আদালত।
তার জামিন স্থগিত চেয়ে সরকারের করা আবেদনের শুনানি শেষে গতকাল চেম্বার জজ বিচারপতি মো. নুরুজ্জামান কোনো আদেশ (নো-অর্ডার) দেননি  । এর ফলে তাকে হাইকোর্টের দেয়া জামিন আদেশ বহাল থাকলো।
মইনুল হোসেনের পক্ষে শুনানি করেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী এ এফ হাসান আরিফ। সঙ্গে ছিলেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী শাহ মো. খসরুজ্জামান ও আইনজীবী এম মাসুদ রানা। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম।
এর আগে গত ১৮ই ডিসেম্বর ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনকে বিচারপতি মো. রেজাউল হক ও বিচারপতি জাফর আহমেদের হাইকোর্ট বেঞ্চ ছয় মাসের জামিন দেন।
এ নিয়ে তিনি চারটি মামলায় জামিন পেলেন। মানহানির তিনটি মামলায় আগেই জামিন পেয়েছেন।
তবে আরো মামলা থাকায় এখনই তিনি কারামুক্ত হচ্ছেন না।
গত ১৬ই অক্টোবর রাতে একাত্তর টেলিভিশনের টকশোতে সাংবাদিক মাসুদা ভাট্টি সরাসরি যুক্ত হওয়া ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনকে প্রশ্ন করেন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে একটি আলোচনা চলছে, আপনি সদ্য গঠিত জাতীয় ঐক্যফ্রন্টে এসে জামায়াতের প্রতিনিধিত্ব করছেন কি-না? মইনুল হোসেন এ প্রশ্নের জবাবের একপর্যায়ে মাসুদা ভাট্টিকে বলেন, আপনাকে চরিত্রহীন বলতে চাই না। এমন মন্তব্যের পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আলোচনা-সমালোচনার ঝড় ওঠে।
এরপর রংপুর ও জামালপুরসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে তার বিরুদ্ধে মানহানির মামলা করে আওয়ামী লীগের অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা। একটি মামলা হয় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে। রংপুরের মামলায় ২২শে অক্টোবর তাকে রাজধানীর উত্তরায় জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতা আ স ম আবদুর রবের বাসা থেকে বৈঠককালে গ্রেপ্তার করে গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। বর্তমানে তিনি কেরানীগঞ্জের কেন্দ্রীয় কারাগারে আছেন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
Ali
২৪ ডিসেম্বর ২০১৮, সোমবার, ৬:৩৬

30 তারিখ পর্যন্ত অপেক্ষা করুন ইনশাআল্লাহ জনগণই আপনাকে বাহির করবে

অন্যান্য খবর