× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২৫ জুন ২০১৯, মঙ্গলবার

নৌকাকে ৩০ হাত পানির নিচে ডোবানো হবে

এক্সক্লুসিভ

দেবীগঞ্জ (পঞ্চগড়) প্রতিনিধি | ২৫ ডিসেম্বর ২০১৮, মঙ্গলবার, ৯:৪৬

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, দেশের জনগণ ভোট দিয়ে আগামী ৩০ তারিখের নির্বাচনে নৌকাকে ৩০ হাত পানির নিচে ডোবাবে। আওয়ামী লীগের ভোট চুরির খায়েশ পূরণ হবে না। তিনি রোববার রাতে পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জের দেবদারু তলায় এক পথসভায় এসব কথা বলেন। গত ১০ বছর ধরে দেশের মানুষ আওয়ামী দুঃশাসনে অতিষ্ঠ উল্লেখ করে তিনি গানের সুরে বলেন, ‘আগে জানলে তোর ভাঙা নৌকায় আর উঠতাম না। মানুষ বুঝলে নৌকায় ভোট দিতো না ।

উপজেলা বিএনপির সভাপতি আবু তোরাব সরকারের সভাপতিত্বে পথসভায় পঞ্চগড়-২  (বোদা- দেবীগঞ্জ) আসনের ঐক্যফ্রন্ট প্রার্থী ফরহাদ হোসেন আজাদসহ স্থানীয় নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখেন।
মির্জা ফখরুল বলেন, আওয়ামী লীগ চায় ২০১৪ সালের ৫ই জানুয়ারির মতো বিনাভোটে নির্বাচনে জয়ী হবে। কিন্তু এবার ফাঁকা মাঠে গোল দিতে দেয়া হবে না।

সারা দেশে ধানের শীষের পক্ষে ঢেউ লেগেছে দাবি করে তিনি বলেন, বাঁধ দিয়ে বন্যার পানি যেমন আটকে রাখা যায় না তেমনি আওয়ামী লীগ শত চেষ্টা করেও এ ঢেউ আটকাতে পারবে না।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ কৃষকদের বিনামূল্যে সার দেয়ার কথা বললেও তারা প্রতারণা করেছে।
৪শ’ টাকার সার এখন ১২শ’ টাকা আর ১০ টাকার চাল এখন ৪০ টাকায় কিনতে হচ্ছে।

তিনি বলেন, আগামী নির্বাচন গণতন্ত্রকে অবরুদ্ধ অবস্থা থেকে উদ্ধারের নির্বাচন। দেশ ও জাতির ভবিষ্যৎ নির্ধারণের নির্বাচন। এজন্য দেশের জনগণকেই আজ সিদ্ধান্ত নিতে হবে তারা গণতন্ত্র রক্ষা করতে চান কি-না। ঐক্যফ্রন্ট সরকার গঠন করলে যুবকদের চাকরি, বেকারদের বেকার-ভাতা প্রদানসহ নানা প্রতিশ্রুতি দেন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর