× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২১ জানুয়ারি ২০১৯, সোমবার

যৌন মন্তব্য করে নিষেধাজ্ঞার মুখে রাহুল-পাণ্ডিয়া

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক | ১১ জানুয়ারি ২০১৯, শুক্রবার, ৯:৫১

‘কফি উইথ করণ’ টেলিভিশন অনুষ্ঠানে যৌনতা বিষয়ে খোলামেলা মন্তব্য করে ব্যাপক সমালোচিত ভারতের দুই ক্রিকেটার হার্দিক পাণ্ডিয়া ও লোকেশ রাহুল। এর জেরে নিষেধাজ্ঞার মুখে তারা। আগামীকাল অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম ম্যাচে মাঠে নামবে ভারত। র‌্যাপিড ফায়ার রাউন্ডে সঞ্চালক করণ জোহরের প্রশ্নের জবাবে নিজের প্রথম যৌনক্রিয়ার বিষয়ে মুখ খোলেন পাণ্ডিয়া। ‘ভার্জিনিটি’ হারানোর দিনে বাবা-মাকে পাণ্ডিয়া বলেছিলেন, ‘আজ ম্যায় করকে আয়া।’ আরো বলেন, কোনো পার্টিতে গেলে মেয়েদের ‘নড়াচড়া’ লক্ষ্য করেন। এক পার্টিতে বাবা-মা জিজ্ঞেস করেন কে তার বিশেষ বান্ধবী? হার্দিক নাকি তখন গুনে শেষ করতে পারছিলেন না যে, কার সঙ্গে তার সম্পর্ক ছিল না! অন্যদিকে, রাহুল বলেন ১৮ বছর বয়সে তার ঘরে কনডম পেয়ে তার মা ভয়ানক রেগে গেলেও বাবা পিঠ চাপড়ে দিয়েছিলেন। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এসব মন্তব্যকে আপত্তিকর ও নারীদের প্রতি অবমাননাকর বলে সমালোচনার ঝড় বয়ে গেছে। আর পাণ্ডিয়া ও রাহুলকে কারণ দর্শানোর নোটিশ পাঠায় ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই)।
টুইটারে ক্ষমা প্রার্থনার পাশাপাশি বোর্ডের কাছেও ক্ষমা চেয়েছেন পাণ্ডিয়া। রাহুল ও পাণ্ডিয়াকে ২ ম্যাচ নিষেধাজ্ঞার সুপারিশ করেছেন বিসিসিআই’র প্রশাসক কমিটির (সিওএ) প্রধান বিনোদ রাই। চূড়ান্ত সিদ্ধান্তের জন্য কমিটির অন্যতম সদস্য ডায়না এডুলজি বিসিসিআই’র আইনি শাখার পরামর্শ চেয়েছেন। এডুলজি বলেন, ‘এ ধরনের মন্তব্য দুঃখজনক। ক্রিকেটারদের কাজ দেশের প্রতিনিধিত্ব করা। বিষেণ সিং বেদির মতো ক্রিকেটারও ষাটের দশকে একটি টেলিভিশন অনুষ্ঠানে যাওয়ার জন্য এক ম্যাচ নিষিদ্ধ হয়েছিলেন।’

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর