× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২৫ জুন ২০১৯, মঙ্গলবার

ছাগলনাইয়ায় নিখোঁজের ৬ দিন পর সাবেক সেনা সদস্যের অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধার

বাংলারজমিন

ফেনী প্রতিনিধি | ১২ জানুয়ারি ২০১৯, শনিবার, ৯:০৬

ছাগলনাইয়ায় নিখোঁজের ৬ দিন পর অবসরপ্রাপ্ত সেনা সদস্য আবুল কালামের (৫৪) অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলার রাধানগর ইউনিয়নের পশ্চিম মধুগ্রামের নিজ ঘরের পাশের সেপটিক ট্যাংক থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। তিনি পশ্চিম মধুগ্রামের সামছুল হকের ছেলে ও অবসরের পূর্বে সেনাবাহিনীর বাবুর্চির (কুক) কাজ করতেন। নিহতের বোন জরিনা বেগম জানান, তার ভাই আবুল কালাম তিন বিয়ে করেছেন। প্রথম স্ত্রীর সঙ্গে বিচ্ছেদের পর রেখা আক্তার নামে এক নারীকে দ্বিতীয় বিয়ে করেন। এরপর ঢাকায় এক পোশাক শ্রমিককে বিয়ে করেন। বর্তমানে তিনি দ্বিতীয় স্ত্রী রেখার সঙ্গে বাড়িতে থাকতেন। গত ৪ঠা জানুয়ারি মাগরিবের নামাজের পর থেকে তার ভাই আবুল কালাম নিখোঁজ ছিল।
তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোনটিও বন্ধ ছিল। নিখোঁজের দিন দুপুরে আবুল কালামের স্ত্রী রেখা আক্তার, তিন ছেলে ও এক মেয়েকে নিয়ে বাবার বাড়িতে চলে যায়। বৃহস্পতিবার ঘরের পাশের সেপটিক ট্যাংক থেকে দুর্গন্ধ ছড়ালে ট্যাংকের ঢাকনা সামান্য খোলা দেখতে পেয়ে স্থানীয়রা পুলিশকে জানায়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে যেয়ে সেপটিক ট্যাংকের ভেতর থেকে আবুল কালাম’র অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধার করে।
ছাগলনাইয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এমএম মুর্শেদ জানান, নিহতের মাথার পেছনে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ ফেনী জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেছে। পুলিশ প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে, এটি পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড। গত ছয়দিন আগে আবুল কালাম নিখোঁজ হলেও পরিবার থেকে থানায় কোনো ধরনের অভিযোগ করেনি। মৃত্যুর বিষয়টি নিয়ে রহস্য থাকায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিহতের স্ত্রী রেখা আক্তার (৪০) ও বড় ছেলে মো. হাসানকে (১৬) থানায় নিয়েছে পুলিশ।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর