× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২৫ জুন ২০১৯, মঙ্গলবার

ভাড়াটিয়া সেজে দম্পতিকে অজ্ঞান করে স্বর্ণালঙ্কার লুট

এক্সক্লুসিভ

স্টাফ রিপোর্টার | ১৩ জানুয়ারি ২০১৯, রবিবার, ৮:৫৯

বাসা ভাড়া নিতে এসেছিলেন তিন নারী। বাড়িতে ছিলেন বৃদ্ধ দম্পতি। এই সুযোগে অজ্ঞান পার্টি দুজনকে অচেতন করে লুট করে নেয় স্বর্ণালংকার। গতকাল ঘটনাটি ঘটেছে সায়েদাবাদের করাতিটোলা এলাকায়। অচেতন বৃদ্ধ দম্পতির নাম এটিএম সোলাইমান (৭০) ও নাজমা বেগম (৫৫)। অসুস্থ অবস্থায় দুজনই চিকিৎসাধীন রয়েছেন ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে। ওই দম্পতির মেয়ের জামাই তাজুল ইসলাম জানান, করাতিটোলায় নিজেদের পাঁচতলা বাসায় থাকেন তার শ্বশুর-শাশুড়ি। তার শ্বশুর জানিয়েছেন, তিনজন নারী বাসা ভাড়ার কথা বলে তাদের বাসায় আসেন।
পরে তাদের নেশাজাতীয় কিছু খাইয়ে অচেতন করে শাশুড়ির পরনের সব গহনা নিয়ে যায়। এতটুকু বলার পরে তিনিও অচেতন হয়ে পড়েন। খবর পেয়ে দুপুর ১২টার দিকে বাসা থেকে তাদের অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করে ঢামেক হাসপাতালে নিয়ে আসেন।

তাজুল ইসলাম মানবজমিনকে বলেন দুপুরে হাসপাতালে আনার পর থেকে এখনো জ্ঞান ফেরেনি। চিকিৎসকরাও চেষ্টা চালাচ্ছেন। ঢামেক হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ বাচ্চু মিয়া জানান, অচেতন অবস্থায় বৃদ্ধ দম্পতিকে হাসপাতালের মেডিসিন বিভাগে ভর্তি করা হয়েছে। এ ব্যাপারে যাত্রাবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কাজী ওয়াজেদ আলী জানান, অজ্ঞান পার্টির এই ঘটনা সম্পর্কে তারা অবগত হয়েছেন। পুলিশের পক্ষ থেকে খোঁজখবর নেয়া হচ্ছে।  বাড়ি ভাড়া নিতে এসে অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে পড়ার ঘটনা এটাই নতুন নয়। গেল বছর ২৬শে আগস্ট ডেমরায় ভাড়াটিয়া সেজে বৃদ্ধ দম্পতি সাহেরা বেগম ও তার স্বামী আব্দুস সাত্তারকে অজ্ঞান করে বাড়ির সব মালামাল লুট করে নেয় সদস্যরা। সারুলিয়ার পূর্ব বক্সনগর এলাকার সে ঘটনায় ঘটনার শিকার দম্পতির মৃত্যু হয়।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর