× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ১৭ জানুয়ারি ২০১৯, বৃহস্পতিবার

রাজনগরে আবারো ডাকাতি

বাংলারজমিন

রাজনগর (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি | ১৩ জানুয়ারি ২০১৯, রবিবার, ৯:০৮

মৌলভীবাজারের রাজনগরে আবারো দুর্ধর্ষ ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। ১৮-২০ জনের একদল ডাকাত আগ্নেয়াস্ত্রের মুখে জিম্মি করে ৭০ ভরি স্বর্ণালঙ্কার, নগদ তিন লাখ টাকা টাকা, ১৩টি মোবাইল ফোনসেট, ২টি টিভিসহ বিভিন্ন মালামাল লুট করে নিয়ে যায়। খবর পেয়ে রাজনগর থানার পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। ঘটনাটি ঘটে উপজেলার ফতেহপুর ইউনিয়নের হামিদপুর গ্রামের চেরাগ মিয়ার বাড়িতে শুক্রবার দিবাগত গভীর রাতে। এ ব্যাপারে মামলার প্রস্তুতি চলছে।
স্থানীয় সূত্র ও গৃহকর্তা জানান, শুক্রবার দিবাগত রাত দেড়টার দিকে ১৮-২০ জনের একদল ডাকাত বাড়ির সামনের গ্রিলের তালা ভেঙে বাড়িতে প্রবেশ করে। এ সময় ডাকাত দল মাথায় অস্ত্র ঠেকিয়ে ঘরের সবাইকে জিম্মি করে রাখে। পরে ঘরের সবকটি আলমারি ভেঙে ৭০ ভরি স্বর্ণালঙ্কার, নগদ ৩ লাখ টাকা, ১৩টি মোবাইল ফোনসেট, ২টি টিভিসহ বিভিন্ন মালামাল লুট করে নিয়ে যায়। ডাকাত দলের হামলায় প্রবাসী কাওছার মিয়া (৪৫) ও আব্দুল সাইদ ওরফে আব্দুল (৪০) আহত হয়েছেন।
আহতদের বালাগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। এদিকে, খবর পেয়ে রাজনগর থানা পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।
গৃহকর্তা চেরাগ মিয়া ওই ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি। তিনি বলেন, ডাকাত দলের হাতে চাপাতি, রামদা, পিস্তলসহ বিভিন্ন প্রকার অস্ত্র ছিল। ঘরের নারী-পুরুষ সবাইকে বেঁধে রেখে আলমারি ভেঙে সব কিছু লুট করে নিয়ে গেছে। আমি বিষয়টি এমপি নেছার আহমদকে জানিয়েছি। তিনি ব্যবস্থা নেয়ার জন্য পুলিশকে বলেছেন। আমি থানায় লিখিত দিয়েছি। রাজনগর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আবুল কালাম বলেন, খবর পেয়ে পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে গিয়েছিল। পুলিশ এ ব্যাপারে যথাযথ ব্যবস্থা নিচ্ছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর