× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২২ আগস্ট ২০১৯, বৃহস্পতিবার

ভারতে ইভিএম বন্ধ করার দাবিতে কমিটি গঠন

ভারত

কলকাতা প্রতিনিধি | ২০ জানুয়ারি ২০১৯, রবিবার, ৬:৫৪

ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিনকে চোর মেশিন অখ্যায়িত করে এই মেশিনকে বন্ধ করার দাবি নিয়ে ভারতের বিজেপি বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলি নির্বাচন কমিশনের দ্বারস্ত হচ্ছে। যতক্ষণ না পর্যন্ত ইভিএম বাতিল করা হচ্ছে ততক্ষণ বেশ কয়েকটি শর্ত মানার দাবি জানিয়েছে বিরোধী নেতারা। জম্মু ও কাশ্মীরের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী ও ন্যাশনাল কনফারেন্সের নেতা ফারুখ আবদুল্লা গত  শনিবার কলকাতায় ব্রিগেড ময়দানের মহাসমাবেশে অভিযোগ করেছিরেন, এই মেশিনের মাধ্যমে কারচুপি করা হয়। তাই এই ইভিএম বন্ধ করার জন্য সকল রাজনৈতিক দলের নেতাদের একযোগে নির্বাচন কমিশনের কাছে এবং রাষ্ট্রপতির কাছে দরবার করা উচিত। 

এরপর একাধিক নেতার গলায় এই একই দাবি শোনা গিয়েছে। সভা শেষে এই ইস্যুতে কমিটি তৈরি করার কথা জানিয়েছেন তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী  মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শনিবার ব্রিগেডের সভা শেষে সাংবাদিক বৈঠকে কংগ্রেস নেতা অভিষেক মনু সিংভি বলেছেন, ইভিএম ব্যবস্থা বন্ধ করার দাবি নিয়ে নির্বাচন কমিশনে যাবেন তারা।

তিনি বলেছেন, বিশ্বের তিন-চারটি দেশ বাদে কেউ এই সিস্টেম ব্যবহার করে না। তাই ভারতেরও উচিত পুরনো ব্যবস্থায় ফিরে যাওয়া। অর্থাৎ ব্যালট পেপার ফিরিয়ে আনা।
যদিও হাতে আর মাত্র দু’মাস আছে। তাই সিস্টেম বদলানো এখনই সম্ভব নয়। তা সত্ত্বেও বেশ কিছু দাবি জানিয়েছেন তিনি। সিংভির দাবি, ১০০ শতাংশ মেশিনে ভিভিপ্যাট লাগানো হোক। এছাড়া ৫০ শতাংশ মেশিনের ভোটের ক্রস চেকিং ও ভেরিফিকেশন করা হোক। এরপরই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, সতীশ মিশ্র, অরবিন্দ কেজরিওয়াল, অখিলেশ যাদব ও অভিষেক মনু সিংভিকে নিয়ে একটি কমিটি তৈরি করা হবে। সেই কমিটি এই দাবির একটি খসড়া তৈরি করবেন। সবার সম্মতিতেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি। আগামী সপ্তাহেই এই দাবি নিয়ে তারা নির্বাচন কমিশনে যাবেন ।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর