× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২১ আগস্ট ২০১৯, বুধবার

তৃণমূল কংগ্রেস সংসদ সদস্যের ২৩৮ কোটি রুপির সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত

ভারত

কলকাতা প্রতিনিধি | ২৯ জানুয়ারি ২০১৯, মঙ্গলবার, ৯:৪৫

 চিটফান্ড কাণ্ডে যুক্ত থাকার অভিযোগে তৃণমূল কগ্রেস সংসদ সদস্য কে ডি সিং যাতে বিদেশে পালিয়ে যেতে না পারে সে ব্যাপারে কড়া নজর রেখেছে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি)। সোমবারই এই সংসদ সদস্যের ২৩৮ কোটি রুপির সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করেছে ইডি। তার মধ্যে রয়েছে রিসোর্ট, শো-রুম। ফ্রিজ করা হয়েছে একাধিক ব্যাংক অ্যাকাউন্ট। আর্থিক লেনদেন সংক্রান্ত নজরদারি সংস্থা ‘সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ বোর্ড অব ইন্ডিয়া’ (সেবি) সমপ্রতি কে ডি সিংয়ের বিরুদ্ধে একটি অভিযোগ দায়ের করে। তাতে বলা হয়, অ্যালকেমিস্ট গ্রুপের কর্ণধার তথা তৃণমূল কংগ্রেসের  রাজ্যসভার সংসদ সদস্য কে ডি সিং প্রায় ১০ কোটি মার্কিন ডলার বিদেশে ‘সাইফনিং’ বা পাচারের  চেষ্টা করছেন। ভারতীয় মুদ্রায় যার মূল্য প্রায় ৭০০ কোটি টাকা। সেবির ওই অভিযোগপত্রে আরো বলা হয়, কে ডি সিংহ দেশ ছেড়ে পালানোর ছক কষছেন।
ইতিমধ্যেই সাইপ্রাসের মতো দেশে এক কোটি টাকা পাঠিয়ে একটি নতুন সংস্থাও খুলে ফেলেছেন কে ডি সিং। ২০১০ সালে প্রথম ঝাড়খণ্ড মুক্তি মোর্চার হয়ে ঝাড়খণ্ড থেকে রাজ্যসভার সংসদ সদস্য হয়েছিলেন পাঞ্জাবের ফতেগড় সাহিবের বাসিন্দা শিল্পপতি কে ডি সিংহ। কিন্তু কয়েক মাস পরেই দল পাল্টে যোগ দিয়েছিলেন তৃণমূল কংগ্রেসে। পরে তৃণমূল কংগ্রেসের হয়ে পশ্চিমবঙ্গ থেকে রাজ্যসভায়  ফের নির্বাচিত হয়েছেন তিনি। তিনি সংসদ সদস্য হওয়ার আগে ২০০৯ সালে আয়কর হানায় তার ২২ কোটি রুপির হিসাববহির্ভূত সম্পত্তির হদিশ মিলেছিল। এর পর ২০১৩ সালে তার সংস্থা আলকেমিস্ট গ্রুপের নাম জড়িয়েছে বেআইনি অর্থলগ্নি কেলেঙ্কারির সঙ্গে। অভিযোগ ওঠে, বাজার থেকে তার সংস্থা বেআইনিভাবে প্রায় ১০০০ কোটি রুপি তুলেছিল।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর