× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, শুক্রবার

মমতার আঁকা ছবি বিক্রি নিয়ে বিতর্ক উসকে দিয়েছে বিজেপি

ভারত

কলকাতা প্রতিনিধি | ৩০ জানুয়ারি ২০১৯, বুধবার, ৮:৩৭

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আঁকা ছবি বিক্রি করে প্রচুর অর্থ সংগ্রহের অভিযোগ আগেও উঠেছে। ইডি এবং সিবিআইয়ের গোয়েন্দারা এ ব্যাপারে তদন্তও করছেন। তবে ফের সেই বিতর্ককে উসকে দিয়েছেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ। মঙ্গলবার পূর্ব মেদিনীপুরের কাঁথিতে এক জনসভায় মমতাকে তীব্র আক্রমণ করার পাশাপাশি বলেছেন, মুখ্যমন্ত্রীর আঁকা ছবি কিনতেন চিটফান্ড মালিকরা। ফলে তাদের বিরুদ্ধে বাংলার তৃণমূল কংগ্রেস সরকার কড়া পদক্ষেপ করবে না। এরপরেই তিনি বলেছেন, বিজেপি রাজ্যে ক্ষমতায় এলে চিট ফান্ডের সব অর্থ ফিরিয়ে দেবেন। তাঁর আঁকা ছবি নিয়ে মন্তব্য করার অমিত শাহর বিরুদ্ধে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও চ্যালেঞ্জ ছুড়ে বলেছেন, ছবি এঁকে টাকা নিয়েছি প্রমাণ করুন। প্রমাণ করতে পারলে রাজনীতি ছেড়ে দেবার কথাও বলেছেন তিনি।
বুধবার বীরভূমের রামপুরহাটে এক সভায় মুখ্যমন্ত্রী বলেছেন, বিজেপি দুর্নীতিবাজদের পার্টি। চালুনি হয়ে তারা বেআইনি কাজের বিচার করছে। মানুষ তা মেনে নেবে না। তিনি চ্যালেঞ্জের সুরে বলেছেন, আমরা জনগনের টাকা লুট করি না। বাংলার মানুষের থেকে ক্যারেকটার সার্টিফিকেট নেব। অন্য কেউ কি বলল তাতে কিছু এসে যায় না। উল্লেখ্য, এক সময় মুখ্যমন্ত্রী নিজেই বলেছিলেন, প্রয়োজনে তাঁর আঁকা ছবি বিক্রি করেই দল চলবে। এর কিছুদিনের মধ্যেই জানা যায়, মমতার আঁকা ছবি কিনেছেন শিল্পপতি থেকে চিটফান্ড মালিকরা পর্যন্ত। বেশ মোটা টাকায় কেনা হয়েছে সেই সব ছবি। সিবিআই তদন্তে ধৃত চিটফান্ড কর্তারা স্বীকার করে নিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রীর ছবি তারা কিনেছিলেন। কলকাতার এক প্রখ্যাত প্রযোজক মমতার আঁকা ৫টি ছবি কিনেছিলেন বলে স্বীকার করেছেন। তিনি সেগুলি সিবিআইয়ের কাছে জমাও দিয়েছেন। রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের মতে, এর আগেও বিরোধিরা চিটফান্ড দুর্নীতি এবং ছবি নিয়ে অভিযোগে সোচ্চার হলেও তা কোনও প্রভাব ফেলেনি। তবে এবার ফের নির্বাচনের মুখে মমতাকে দুর্নীতির তীরে বিদ্ধ করতে চাইছে বিজেপি। আর সেদিকে লক্ষ্য রেখেই জনসভায় বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ চিটফান্ড ও মমতার আঁকা ছবি নিয়ে ফের সরব হয়েছেন।  

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর