× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, শুক্রবার

আন্তর্জাতিক কলকাতা বইমেলা শুরু হয়েছে

ভারত

কলকাতা প্রতিনিধি | ৩১ জানুয়ারি ২০১৯, বৃহস্পতিবার, ৮:২৯

৪৩তম আন্তর্জাতিক কলকাতা বইমেলা বৃহষ্পতিবার থেকে শুরু হয়েছে। বৃহষ্পতিবার বিকেলে সল্টলেকের সেন্ট্রাল পার্কে বিশ্বের অন্যতম বৃহৎ এই বইমেলার উদ্বোধন করেছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গুয়াতেমালার বিশিষ্ট সাহিত্যিক এউদা মোরালেস। উদ্বোধনী মঞ্চে সিইএসসি সৃষ্টিসম্মান তুলে দেওয়া হয়েছে  সাহিত্যিক শংকর-র হাতে। এবারের বইমেলার ফোকাল দেশ গুয়াতেমালা। ফলে মায়া সভ্যতাকে তুলে ধরা হয়েছে গুয়াতেমালার প্যাভিলিয়নে। এছাড়া পশ্চিমবঙ্গে লেপচা জনগোষ্ঠীর সংস্কৃতিকেও বিশেষ গুরুত্ব দিয়ে তুলে ধরা হয়েছে। এবারের বইমেলায় থাকছে ৬০০টি বইয়ের স্টল এবং ২০০ লিটল ম্যাগাজিন।
২০টির বেশি  দেশ এই বইমেলায় অংশ নিয়েছে বলে মেলার ডিরেক্টর সুধাংশু দে জানিয়েছেন। বইমেলাকে এবার বর্ণময় করে তোলা হয়েছে। সম্প্রতি প্রয়াত তিন সাহিত্যিক, নীরেন্দ্রনাথ চক্রবর্তী, অতীন বন্দ্যোপাধ্যায় ও দিব্যেন্দু পালিতের নামে তিনটি হলের নামকরণ করা হয়েছে।  লিটল ম্যাগাজিন প্যাভিলিয়ন উৎসর্গ করা হয়েছে সদ্য প্রয়াত কবি পিনাকী ঠাকুরের নামে। বইমেলায় প্রতিবছরের মত এবারও সর্ববৃহৎ প্যাভেলিয়নটি বাংলাদেশের। ঢাকার রোজ গার্ডেনের প্রাসাদের অনুকরণে এই প্যাভিলিয়নটি গতে তোলা হয়েছে। বাংলাদেশের ৪১টি প্রকাশনা সংস্থা এই প্যাভিলিয়নে ১০ হাজারের বেশি বই নিয়ে হাজির হয়েছেন। ১০ ফেব্রুয়ারি মেলায় বাংলাদেশ দিবস পালিত হবে। এই উপলক্ষ্যে একটি সেমিনারের আযোজন করা হয়েছে। এই সেমিনারে উপস্থিত থাকবেন বাংলাদেশ সরকারের সংস্কৃতিবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ, বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক হাবীবুল্লাহ সিরাজীসহ বাংলাদেশের বিশিষ্টজনেরা।  বইমেলার আয়োজক সংস্থা পাবলিশার্স এন্ড বুকসেলার্স গিল্ডের সাধারণ সম্পাদক ত্রিদিব চট্টোপাধ্যায় জানিয়েছেন, এবারের বইমেলায় ক্রেতাদের জন্য লটারির ব্যবস্থা রাখা হযেছে। এই চূড়ান্ত পর্যায়ে বিজয়ী ক্রেতাকে এক লক্ষ রুপির বই সহ একটি আলমারি উপহার দেওয়া হবে। এবারের বইমেলায় বই কিনুন, গ্রন্থাগার জিতুন স্লোগান রাখা হয়েছে। ৭-৯ ফেব্রুয়ারি বইমেলায় অনুষ্ঠিত হবে ষষ্ঠ বর্ষ কলকাতা সাহিত্য উৎসব। ৩ ফেব্রুয়ারি হবে শিশু উৎসব। ১১ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত প্রতিদিন দুপুর ১২টা থেকে রাত্রি ৮টা পর্যন্ত এই মেলা চলবে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর