× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২৩ মে ২০১৯, বৃহস্পতিবার

আজ নাকি ভালোবাসার দিন?

ষোলো আনা

ষোলো আনা ডেস্ক | ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, বৃহস্পতিবার, ৯:২৯
ছবিঃ জীবন আহমেদ

আজ বিশ্ব ভালোবাসা দিবস। বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশেও পালিত হচ্ছে দিনটি। এই দিনে সকলের প্রতি ভালোবাসা প্রকাশ করা হলেও প্রেমিক-প্রেমিকাদের জন্য বিশেষ একটি দিন।

ইতিহাসে বেশ কয়েকটি কথা প্রচলিত থাকলেও সর্বাধিক আলোচিত ইতিহাসটি হচ্ছে- রোম সম্রাট দ্বিতীয় ক্লডিয়াসের সাম্রাজ্য টিকে রাখতে চাই বিপুল পরিমাণ সেনাসদস্য। আর বিপুলসংখ্যক যুবকের সেনাবাহিনীতে অন্তর্ভুক্ত করার উদ্দেশ্যে বিবাহের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করে সম্রাট। এই সিদ্ধান্ত স্বাভাবিকভাবে মেনে নিতে পারেননি তখনকার যুবক-যুবতীরা। বিরোধিতা করেন ধর্মযাজক সেন্ট ভ্যালেন্টাইনও। তিনি গোপনে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ করাতে শুরু করেন তাদের। ধীরে ধীরে ভ্যালেন্টাইনের পরিচিতি ঘটে ভালোবাসার বন্ধু হিসেবে। ভ্যালেন্টাইনের নাম চারদিকে ছড়িয়ে পড়ে এবং সম্রাটও বিষয়টি জানতে পারেন। সম্রাট তাকে গ্রেপ্তার করে মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দেয়। ২৭০ খ্রিস্টাব্দের ১৪ই ফেব্রুয়ারি তার এই মৃত্যুদণ্ড কার্যকর হয়। সেই থেকেই ১৪ই ফেব্রুয়ারিকে ভ্যালেন্টাইন ডে বা বিশ্ব ভালোবাসা দিবস হিসেবে পালন করা হয়।

বাংলাদেশে ভালোবাসা দিবস চালু হয় ১৯৯৩ সালে। দিনটিকে দেশে প্রচলিত করেন বিশিষ্ট সাংবাদিক শফিক রেহমান। বিলেতে পড়ালেখা শেষ করে এসে বাংলাদেশে দিবসটি পালনের চিন্তা ছড়িয়ে দেন। তরুণ প্রজন্ম দিবসটিকে বেশ গুরুত্বের সঙ্গে গ্রহণ করে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর