× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার মন ভালো করা খবর
ঢাকা, ২২ অক্টোবর ২০১৯, মঙ্গলবার

সর্বহারা পরিচয়ে রাবির দুই শিক্ষককে হত্যার হুমকি

শিক্ষাঙ্গন

রাবি প্রতিনিধি | ২ মার্চ ২০১৯, শনিবার, ৭:১৫

সর্বহারা পরিচয়ে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) দর্শন বিভাগের শিক্ষক অধ্যাপক মোতাছিম বিল্লাহ ও সমাজবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষক আমিনুল ইসলামকে অপরিচিত নম্বর থেকে ফোন করে চাঁদা দাবি ও হত্যার হুমকি দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত বৃহস্পতিবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় এ ঘটনা ঘটে। পরে শনিবার (২ মার্চ) বিষয়টি জানাজানি হয়।

তাদেরকে ০১৭২৫৬৬৪৯৭২ নম্বর থেকে ফোন করা হয়। পরে এই নাম্বারে ফোন করে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও নম্বরটি বন্ধ পাওয়া যায়। এ ঘটনায় নগরীর মতিহার থানায় জিডি করেছেন ওই দুই শিক্ষক।

শিক্ষক মোতাছিম বিল্লাহ ওইদিন সন্ধ্যায় এবং আমিনুল ইসলাম গত শুক্রবার (১ মার্চ) সকালে থানায় জিডি করেন। মোতাছিম বিল্লাহর জিডিতে বলা হয়, সর্বহারা কমান্ডার মহিউদ্দিন পরিচয় দিয়ে আমি টার্গেটে আছি বলে জানায় এবং আমার কাছে চাঁদা দাবি করে।
আমাকে দেখে নেওয়া হবে, প্রাণে মেরে ফেলা হবে বলে হুমকিও দেওয়া হয়। আমিনুল ইসলামের জিডির কপিতে বলা হয়, গত ২৮ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যায় আমিনুল ইসলামের ব্যক্তিগত মোবাইল নম্বরে সর্বহারা পরিচয়ে ফোন করে মেরে ফেলার হুমকি দেয়।

জানতে চাইলে অধ্যাপক মোতাছিম বিল্লাহ বলেন, প্রথমে আমাকে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দেওয়া হয়। পরে চাঁদা দাবি করলেও টাকার পরিমাণ উল্লেখ করেনি। বিষয়টি পুলিশ প্রশাসনকে জানিয়েছি। অধ্যাপক আমিনুল ইসলাম বলেন, আমাকে ফোন করে কিডন্যাপ ও হত্যার হুমকি দেওয়া হয়। তাকে চাঁদা দিলে বিষয়টি মীমাংসা করবে বলে জানায়। আমি টাকা দিতে অস্বীকৃতি জানাই।

এ ঘটনায় ওই দুই শিক্ষক নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন বলে জানান। তারা দুজনই হুমকিদাতার বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য পুলিশ প্রশাসনের কাছে দাবি জানিয়েছেন। মতিহার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহাদত হোসেন বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই শিক্ষক চাঁদা দাবি ও হত্যার হুমকি দেওয়া বিষয়ে থানায় জিডি করেছেন। ঘটনার তদন্ত করা হচ্ছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর