× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২৩ জুলাই ২০১৯, মঙ্গলবার

কলকাতার বর্জ্য ব্যবস্থাপনা ও নিকাশি পানি শুদ্ধ করার কারিগরি সহায়তা চেয়েছে বাংলাদেশ

ভারত

কলকাতা প্রতিনিধি | ১০ মার্চ ২০১৯, রবিবার, ৩:০৪

কলকাতার বর্জ্য ব্যবস্থাপনা ও নিকাশি পানি শুদ্ধ করার কারিগরি সহায়তা চেয়েছে বাংলাদেশ সরকার। শনিবার কলকাতা পুরসভার সদর দপ্তরে পশ্চিমবঙ্গের পুর ও নগর উন্নয়নমন্ত্রী ও কলকাতার মেয়র ফিরহাদ হাকিমের সঙ্গে এক বৈঠকে এই সহায়তা চেয়েছেন বাংলাদেশের স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায়মন্ত্রী তাজুল ইসলাম। ফিরহাদ হাকিমের সঙ্গে বাংলাদেশের মন্ত্রীর বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশের স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের প্রধান প্রকৌশলী মহম্মদ আবুল কালাম আজাদসহ সরকারের পদস্থ প্রকৌশলীদের একটি প্রতিনিধিদল। আলোচনার সময় কলকাতার বর্জ্য ব্যবস্থাপনা এবং নিকাশির পানি শুদ্ধকরণে আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহারের বিস্তারিত তুলে ধরেছেন ফিরহাদ হাকিম।

কলকাতা পুরসভার ইঞ্জিনিয়ারদের সঙ্গে কথাও বলেছেন বাংলাদেশের প্রতিনিধিরা।  এদিনের বৈঠক শেষে মেয়র ফিরহাদ হাকিম কলেছেন, ওরা সুয়ারেজ ট্রিটমেন্ট প্ল্যান্ট সম্পর্কে জানতে চেয়েছিলেন। কলকাতার ভ্যাট সরে গিয়ে কম্প্যাক্টর কীভাবে কাজ করছে, জঞ্জাল পৃথকীকরণ কী ভাবে হয়ে থাকে, সে সবও জানতে চান ওরা। মেয়র জানিয়েছেন,  কোন প্রযুক্তির সাহায্যে সেই কাজ করা হচ্ছে, সেই কারিগরি বিনিময় করতে চেয়েছেন বাংলাদেশের প্রতিনিধিরা। পুরসভা সূত্রের খবর, রাজ্য সরকারের অনুমতি নিয়ে সেই কাজে সাহায্য করা হবে বলেও জানানো হয়েছে।
সামগ্রিকভাবে কলকাতায় কিভাবে বর্জ্য অপসারণ এবং তার ব্যবস্থাপনা এবং নিকাশি পানি পরিশোধনের কাজ নিয়ে মন্ত্রী খুবই আগ্রহ প্রকাশ করেছেন।

তিনি জানিয়েছেন, বাংলাদেশে নিকাশি পানি পরিশোধনের কোনও আধুনিক ব্যবস্থা নেই। এদিন মন্ত্রী তাজুল ইসলাম বাংলাদেশের জাতির জনক ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্মৃতিবাহী ঐতিহাসিক বেকার হোস্টেল পরিদর্শ করেছেন। সেখানে তিনি বঙ্গবন্ধুর আবক্ষ মূর্তিতে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করেছেন। এরপর গিয়েছেন বঙ্গবন্ধু যে ইসলামিয়া কলেজে পড়েছিলেন সেই কলেজ পরিদর্শনে। সেই কলেজটি এখন মৌলানা আবুল কালাম কলেজ নামে পরিচিত। এই সময় মন্ত্রীর সঙ্গে ছিলেন কলকাতায় নিযুক্ত বাংলাদেশের উপহাইমশনার তৌফিক হাসান।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর