× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২৪ মার্চ ২০১৯, রবিবার

আইসিইউ থেকে ওবায়দুল কাদেরকে কেবিনে নেয়ার চিন্তা

এক্সক্লুসিভ

স্টাফ রিপোর্টার | ১১ মার্চ ২০১৯, সোমবার, ৯:৫০

সিঙ্গাপুরের মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের অবস্থার আরো উন্নতি হওয়ায় তাকে আইসিইউ থেকে কেবিনে স্থানান্তরের কথা ভাবছেন চিকিৎসকরা। সিঙ্গাপুরে তার সঙ্গে থাকা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের নিউরোলজি বিভাগের অধ্যাপক ডা. আবু নাসার রিজভী রোববার এ তথ্য জানিয়েছেন। তিনি জানান, মাউন্ট এলিজাবেথের কার্ডিও থোরাসিক সার্জন ডা. সিবাস্টিন কুমার সামি সকালে ওবায়দুল কাদেরের সর্বশেষ পরিস্থিতি তার পরিবারের সদস্যদের জানান। এর আগে ডা. রিজভী শনিবার জানিয়েছিলেন, সেতুমন্ত্রী কাদেরের শরীর থেকে সব ধরনের যন্ত্র খুলে ফেলা হয়েছে। তিনি চিকিৎসক ও পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে স্বাভাবিকভাবে কথা বলতে পারছেন। সেতুমন্ত্রীর শরীরের সব একস্ট্রার্নাল ডিভাইস খুলে নেয়া হয়েছে। তার লাস্ট যে এন্ডোটাকিয়াটা ছিল সেটাও খুলে নেয়া হয়েছে। এখন তিনি সব ডিভাইসমুক্ত।
ওবায়দুল কাদেরের হৃদযন্ত্র ও রক্তচাপ স্থিতিশীল রয়েছে এবং তার রক্তের সংক্রমণ ও কিডনির অবস্থাও নিয়ন্ত্রণের মধ্যে রয়েছে বলে মাউন্ট এলিজাবেথের চিকিৎসকরা জানিয়েছেন। ওবায়দুল কাদের হৃদরোগ, ডায়াবেটিস ছাড়াও শ্বাসতন্ত্রের জটিল রোগ সিওপিডিতে (ক্রনিক অবসট্রাকটিভ পালমোনারি ডিজিজ) ভুগছেন। গত ৩রা মার্চ সকালে শ্বাসকষ্ট নিয়ে তিনি ঢাকার বঙ্গবন্ধু মেডিক্যালে ভর্তি হলে এনজিওগ্রামে তার হৃদপিণ্ডের রক্তনালীতে তিনটি ব্লক ধরা পড়ে। এর মধ্যে একটি ব্লক স্টেন্টিংয়ের মাধ্যমে অপসারণ করেন চিকিৎসকরা। অবস্থা কিছুটা স্থিতিশীল হলে পরদিন বিকালে উন্নত চিকিৎসার জন্য এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে করে তাকে সিঙ্গাপুরে নেয়া হয়। সেদিন রাতেই একটি মেডিকেল বোর্ড গঠন করে ওবায়দুল কাদেরের চিকিৎসা শুরু করেন মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালের চিকিৎসকরা।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর