× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২৪ মার্চ ২০১৯, রবিবার

ওমর সানীর আক্ষেপ

বিনোদন

স্টাফ রিপোর্টার | ১৪ মার্চ ২০১৯, বৃহস্পতিবার, ৭:৫৯

আমাদের চলচ্চিত্রের সংকট এখন চরমে। প্রতিটি চলচ্চিত্র মুক্তির পর ফ্লপ হচ্ছে। আর আমি মনে করি, এই সময়ে ফিল্মে সুপারস্টার বলতে কেউ নেই। নতুন কোনো গল্প তৈরি হচ্ছে না। একঘেয়েমি নাচ, গান ও সেই একই ফাইটের ছবি এখন আর কোনো দর্শক দেখতে চায় না। এসব ফর্মুলার ছবি থেকে আমাদের বেরিয়ে আসতে হবে। দর্শক এমন একঘেয়েমি কাহিনীর ছবি আর দেখতে চায় না- ঢালিউডের বর্তমান অবস্থা নিয়ে আক্ষেপ করে কথাগুলো বলেন চিত্রনায়ক ওমর সানী। চলচ্চিত্রের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে কথা বলেছেন তিনি।
বছর চারেক আগে ওমর সানীর ওজন ছিল ১২৭ কেজি। তা কমিয়ে এবং খাদ্যাভ্যাস পরিবর্তন করে দর্শকের সামনে আবার নতুন লুকে হাজির হন তিনি। বেশ কিছু বিজ্ঞাপন ও চলচ্চিত্রে তাকে নতুন লুকে দর্শক দেখেছেন। মডেল হিসেবে তার বিজ্ঞাপনগুলো প্রচারের পর দর্শকপ্রিয়তাও পেয়েছে। সামনে শিল্পী সমিতির নির্বাচন। তাই তার কাছে নির্বাচন নিয়ে জানতে চাইলে বলেন, নির্বাচন করার সিদ্ধান্ত আমি নেইনি এখনো। তবে মায়া মমতা আছে এই সমিতিকে ঘিরে। আবার ভাবি কি হবে নির্বাচন করে? কারণ শিল্পী সমিতি থেকে সভাপতি বা অন্য কাউকে সেন্সরবোর্ডের সদস্য করা হচ্ছে না এখন। আমি তো মনে করি শিল্পী সমিতিতে যথেষ্ট মেধাবী ও শিক্ষিত শিল্পী রয়েছেন। প্রযোজক-পরিবেশক সমিতি, পরিচালক সমিতির মতো শিল্পী সমিতি থেকেও সেন্সরবোর্ডের সদস্য নেয়া উচিত। পরিচালক সমিতি থেকে মুশফিকুর রহমান গুলজারসহ অনেকে চলচ্চিত্রের উন্নয়নে কাজ করছেন। আরো অনেক প্রযোজক, নির্মাতা, শিল্পী চলচ্চিত্রের উন্নয়ন নিয়ে এখনো ভাবেন। দেখা যাক সামনে কি হয়। এপ্রিলে কানাডা ও আমেরিকায় শো আছে ওমর সানীর। পাশাপাশি ‘নোলক’ নামে একটি ছবির কাজ শেষ করেছেন তিনি। আর সামনে নির্মাতা সাঈদুর রহমান সাঈদের ‘মধুর ক্যান্টিন’ ছবিতে মধু চরিত্রে কাজ শুরু করতে যাচ্ছেন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর