× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ১৮ জুন ২০১৯, মঙ্গলবার

রোনালদোর হ্যাটট্রিকে জুভেন্টাসের ‘মিরাকল’

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক | ১৪ মার্চ ২০১৯, বৃহস্পতিবার, ৯:২৫

জুভেন্টাসের বিপক্ষে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের চ্যাম্পিয়ন্স লীগের শেষ ষোলোর দ্বিতীয় লেগের আগে দিয়েগো সিমিওনেকে এক সাংবাদিক প্রশ্ন করেন, ‘আপনি কি মনে করেন যে আয়াক্স ও ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের মতো জুভেন্টাসও প্রত্যাবর্তনের গল্প লিখে চ্যাম্পিয়ন্স লীগের কোয়ার্টার ফাইনালে উঠবে?’ সিমিওনে উত্তর দেন, ‘এমনটি ঘটলে আমি মাদ্রিদের রাস্তায় তরমুজ বিক্রেতা হবো।’ সিমিওনে কি তার কথা রাখবেন? মঙ্গলবার রাতে তুরিনে ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর হ্যাটট্রিকে সমীকরণ যে পাল্টে গেলো! প্রথম লেগে অ্যাটলেটিকোর কাছে ২-০ গোলের হার দেখা জুভেন্টাস ফিরতি লেগে জিতলো ৩-০ গোলে। দুই লেগ মিলিয়ে ৩-২ ব্যবধানে চ্যাম্পিয়ন্স লীগের কোয়ার্টার ফাইনালের টিকিট কাটলো তুরিনের বুড়িরা।
চ্যাম্পিয়ন্স লীগে আগের তিনবারের দেখায় অ্যাটলেটিকোর বিপক্ষে জয় দূরে থাক, একটি গোলও ছিল না জুভেন্টাসের। তবে এবার যে ব্যতিক্রম কিছু হবেই তার ইঙ্গিত পাওয়া যায় ম্যাচের ২৭তম মিনিটে। ইতালিয়ান উইঙ্গার ফেদেরিকো বেরনান্দেস্কির ক্রস থেকে বুলেট গতির হেডে অ্যাটলেটিকোর জালে বল পাঠান রোনালদো। অসম্ভবকে সম্ভব করার মিশনে এক ধাপ এগিয়ে যায় জুভেন্টাস। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই জুভিদের স্কোরলাইন ২-০ বানিয়ে ফেলেন রোনালদো। এবারও হেড থেকে গোল। হোসে ক্যানসেলোর ক্রস মাথা ছুঁইয়ে দিক পরিবর্তন করে গোলপোস্টে পাঠান পর্তুগিজ তারকা।
অ্যাটলেটিকোর স্লোভেনিয়ান গোলরক্ষক ইয়ান ওবলাক বলটা জালে জড়ানোর আগেই ঠেকিয়ে দেন। কিন্তু ভিডিও রিপ্লেতে দেখা যায় বল গোললাইন অতিক্রম করে ফেলেছে।
কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত করতে তখনও একটা গোল দরকার জুভেন্টাসের। সেই গোলটা তারা পায় ম্যাচের শেষের দিকে। ৮৫তম মিনিটে নিজেদের সীমানায় বেরনান্দেস্কিকে ফাউল করে বসেন অ্যাটলেটিকোর আর্জেন্টাইন তারকা অ্যাঙ্গেল কোরেয়া। রেফারিও বিন্দুমাত্র দেরি না করে বাজান পেনাল্টির বাঁশি। আর স্পটকিক থেকে চ্যাম্পিয়ন্স লীগের অষ্টম ও ক্যারিয়ারের ৫২তম হ্যাটট্রিক পূর্ণ করে জুভেন্টাসকে কোয়ার্টার ফাইনালে নিয়ে যান রোনালদো। ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো ছাড়া ইউরোপসেরা আসরে আটটি হ্যাটট্রিক আছে কেবল বার্সেলোনার আর্জেন্টাইন সুপারস্টার লিওনেল মেসির।
ওই গোলটা তিনি উদযাপন করেন অ্যাটলেটিকোর আর্জেন্টাইন কোচ সিমিওনের ঢঙে। প্রথম লেগে দিয়েগো গোডিনের গোলের পর নিজের নিম্নাঙ্গ চেপে ধরে ঠিক যেভাবে উল্লাস করেছিলেন সিমিওনে, ঠিক সেভাবে।    

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর