× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২৪ মার্চ ২০১৯, রবিবার

দল হারলেও ‘হিরো’ ইসুরু উদানা

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক | ১৪ মার্চ ২০১৯, বৃহস্পতিবার, ৩:০৫

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ হারের পর ওয়ানডে সিরিজে দারুণভাবে ঘুরে দাড়িয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা। ওয়ানডেতে প্রোটিয়াদের কাছে পাত্তাই পাচ্ছে না লঙ্কানরা। বুধবার পাঁচ ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের চতুর্থটিতে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ৬ উইকেটে জয় পেয়েছে স্বাগতিকরা। এ জয়ে সিরিজের ব্যবধানটা ৪-০ করল দক্ষিণ আফ্রিকা। ১৬ই মার্চ কেপটাউনে সিরিজের শেষ ওয়ানডেতে মুখোমুখি হয়ে দুদল।
পোর্ট এলিজাবেথে টসে জিতে শ্রীলঙ্কাকে ব্যাটিংয়ের আমন্ত্রণ জানায় স্বগাতিকরা। ব্যাট করতে নেমে ৩৯.২ ওভারে ১৮৯ রানে গুটিয়ে যায় লঙ্কানদের ইনিংস। ব্যাটিং বিপর্যয়ের দিনে হাল ধরেন নবম উইকেটে নামা ইসুরু উদানা। তুলে নেন ক্যারিয়ারের প্রথম ওয়ানডে হাফ সেঞ্চুরি।
৫৭ বলে৭৮ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলেন উদানা। ইনিংসে ৭টি চার ও চারটি ছক্কার মার মারেন। এছাড়াও অভিশকা ফের্নান্দো (২৯), কুশাল মেন্ডিস (২১) ও ধনঞ্জয় ডি সিলভা (২২) রান করেন। প্রোটিয়াদের পক্ষে সর্বোচ্চ তিন উইকেট শিকার করেন আনরিচ নরজি।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে দলীয় ২১ রানে সাজঘরে ফেরেন রেজা হ্যানরিক্স(৮)। কিন্তু ওপর প্রান্তে থাকা আরেক ওপেনার কুইন্টন ডি কক খেলেন টানা চতুর্থ পঞ্চাশোর্ধ রানের ইনিংস। ৫৭ বলে ৫১ রানের ইনিংসে ৬টি চারের মার মারেন এই উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান। আগের তিন ইনিংসে ডি ককের রান ৮১, ৯৪ ও ১২১। পরে এইডিন মার্করাম করেন ২৯ রান। ফ্যাফ ডুপ্লেসির ব্যাট থেকে আসে ৪৩ রান। শেষ দিকে ডেভিড মিলার (২৫*) ও জেপি ডুমিনি (৩১*) রানে ৩২.৫ ওভারে ৬ উইকেট হাতে রেখেই জয় নিয়ে মাঠ ছাড়েন। লঙ্কানদের পক্ষে ৩ উইকেট শিকার করেন ধনঞ্জয় ডি সিলভা। দল হারলেও দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ের পুরস্কার হিসেবে ম্যাচ সেরা হয়েছেন উদানা।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর