× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২০ মার্চ ২০১৯, বুধবার

কালীগঞ্জে প্রবাসী জুলহাস হত্যায় দুই বন্ধুর নামে মামলা

বাংলারজমিন

কালীগঞ্জ (গাজীপুর) প্রতিনিধি | ১৬ মার্চ ২০১৯, শনিবার, ৮:৫০

 কালীগঞ্জে দুবাই প্রবাসী জুলহাস হত্যায় তার দুই বন্ধুর নামে থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেছেন নিহতের বাবা মো. বোরহানউদ্দিন শেখ। গতকাল নিহত জুলহাস সরকারের বাবা মো. বোরহানউদ্দিন শেখ বাদী হয়ে জুলহাসের বন্ধু কাজল সরকার ও জাহাঙ্গীর শেখের নামে কালীগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। জাঙ্গালিয়া ইউনিয়নের পুনসহি গ্রামের মৃত সাঈদ সরকারের ছেলে কাজল সরকার ও একই গ্রামের সিরাজুল ইসলাম শেখের ছেলে জাহাঙ্গীর শেখ তারা দুইজন ও  তাদের সহযোগীদের নিয়ে জুলহাসকে হত্যা করেছে বলে বাদী মামলায় উল্লেখ করেন। হত্যা মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে কালীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আবু বকর মিয়া বলেন, প্রবাসী জুলহাস হত্যায় দুইজনের নামে নিহতের বাবা বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেছে, যার নং ২৪(৩)১৯। এ সংক্রান্ত বিষয়ে এখনো পর্যন্ত কেউ গ্রেপ্তার হয়নি। তবে আসামিদের গ্রেপ্তারের জন্য পুলিশি অভিযান অব্যাহত রয়েছে। নিহতের পরিবার ও থানা সূত্রে জানা যায়, উপজেলার জাঙ্গালিয়া ইউনিয়নের পুনসহি পশ্চিমপাড়া শুরাইলা গ্রামে বুধবার রাতে দুই সন্তানের জনক দুবাই প্রবাসী জুলহাস সরকার (৩০)কে তার দুই বন্ধু কাজল সরকার ও জাহাঙ্গীর শেখ নেশাজাতীয় দ্রব্য খাইয়ে হত্যা করেছে বলে নিহতের পরিবার অভিযোগ করেন। গত বুধবার রাত আনুমানিক ৯টার দিকে জুলহাসের মোবাইলে একটি ফোন আসে।
তারপর সে ঘর থেকে বের হয়ে গিয়ে নিখোঁজ হয়। জুলহাস ঘরে ফিরে না আসায় নিহতের স্ত্রী মানসুরা বেগম বিষয়টি তার শ্বশুর বোরহান উদ্দিন সরকারকে জানায়। পরে তার শ্বশুরবাড়ির লোকজন আশেপাশে খোঁজাখুঁজি করতে থাকে। গত বৃহস্পতিবার সকালে বাড়ি থেকে প্রায় ১০০ গজ পশ্চিমে নির্জন স্থানে বিলের পাশে জুলহাসের নিথর দেহ পড়ে থাকতে দেখে এলাকাবাসী। পরে তাদের চিৎকারে বাড়ির লোকজন ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই প্রবাসীকে অজ্ঞান অবস্থায়  উদ্ধার করে গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে  গেলে সেখানকার কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
মামলার তদন্ত কর্মকর্তা কালীগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. মনোয়ার হোসেন বলেন, বাহ্যিকভাবে প্রবাসী জুলহাসের শরীরে আঘাতের কোনো চিহ্ন পাওয়া যায়নি। তবে পানি জাতীয় কিছুর সঙ্গে কোনো ধরনের নেশাদ্রব্য খাওয়ানো হতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করেছেন পুলিশ।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর