× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২০ মার্চ ২০১৯, বুধবার

আড়াইহাজারে নবীন-প্রবীণের লড়াই

বাংলারজমিন

আড়াইহাজার (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি | ১৬ মার্চ ২০১৯, শনিবার, ৮:৫১

আড়াইহাজারে উপজেলা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে চতুর্থ ধাপে ৩১শে মার্চ। এ উপজেলায় নবীন ও প্রবীণের মধ্যে ভোটের লড়াই হতে যাচ্ছে। প্রচার-প্রচারণায় ব্যস্ত সময় পার করছেন তারা। অংশ নিচ্ছেন বিভিন্ন সামাজিক অনুষ্ঠানে। জয় নিজের করে নিতে তারা নানা কৌশল অবলম্বন করে যাচ্ছেন। ১৪ই মার্চ প্রতীক বরাদ্দের পর প্রার্থীরা ব্যাপকভাবে প্রচারণা চালিয়েছেন। উপজেলার সর্বত্র ছেঁয়ে গেছে নির্বাচনী প্রচারপত্রে। স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা দলীয় প্রার্থী মুজাহিদুর রহমান হেলো সরকারের পক্ষে ভোটারদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে ভোট প্রার্থনা করে যাচ্ছেন।
এদিকে, নৌকার প্রার্থীকে সমর্থন দিয়ে ১৩ই মার্চ স্বতন্ত্র প্রার্থী থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি শাহ্‌জালাল মিয়া তার প্রার্থিতা প্রত্যাহার করে নিয়েছেন। এতে আওয়ামী লীগের প্রার্থী তার জয়ের ব্যাপারে শতভাগ আশাবাদী হয়ে উঠেছেন। এদিকে তরুণ স্বতন্ত্র প্রার্থী ইকবাল হোসেন মোল্লার পক্ষেও আওয়ামী লীগের একটি অংশ প্রচারণায় নেমেছেন বলে তার দাবি। এতে তিনিও তার জয় নিশ্চিত বলে মনে করছেন। ভোটাররা মনে করছেন এবার প্রবীণ ও নবীনের মধ্যে ভোটের লড়াইটা বেশ জমে উঠবে। তবে, যোগ্য প্রার্থীকেই এবার চেয়ারম্যান হিসেবে বেছে নেবেন ভোটাররা। এদিকে, নানা কারণে নির্বাচনী পরিবেশ নিয়ে অনেকেই শঙ্কাও প্রকাশ করেছেন।
২টি পৌরসভা ও ১০টি ইউনিয়ন নিয়ে এই উপজেলা গঠিত। হাল নাগাদ ভোটার মোট ভোটার দুই লাখ ৮৩ হাজার ৮৬৭ জন। নারী ভোটার এক লাখ ৩৯ হাজার ৭৪৫ ও পুরুষ এক লাখ ৪৪ হাজার ১২২ জন।
গতকাল দেখা গেছে, উপজেলার বিভিন্ন ব্যাপক প্রচারণায় চালিয়েছেন মুজাহিদুর রহমান হেলো সরকার। দলটির স্থানীয় নেতাকর্মীদের অনেকেই জানিয়েছেন শেষ পর্যন্ত নৌকার পক্ষে সবাই মাঠে থাকবেন। ৩১শে মার্চ নির্বাচনে নৌকার জয় নিশ্চিত। হেলো সরকার উপজেলার সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান। এ ছাড়াও তিনি শেখ রাসেল জাতীয় শিশু-কিশোর পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক। তবে, তার সঙ্গে ভোটের লড়াইয়ে রয়েছে তরুণ স্বতন্ত্র প্রার্থী থানা যুবলীগের সহসভাপতি ইকবাল হোসেন মোল্লা। তিনি দলীয় মনোনয়ন চেয়ে বঞ্চিত হয়েছেন। এর আগেও তিনি সদ্য অনুষ্ঠেয় পৌরসভা নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী ছিলেন। তিনি স্থানীয় এমপি নজরুল ইসলাম বাবুর আপন ভাগিনা। তবে, জয় নিশ্চিত করতে নেতাকর্মীর মন জোগাতে ও ভোটারদের কাছে টানতে তারা দুজনেই নানা প্রতিশ্রুতি দিয়ে যাচ্ছেন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর