× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২৪ মার্চ ২০১৯, রবিবার
সুপ্রিম কোর্ট বার

আমিন উদ্দিন সভাপতি খোকন সম্পাদক

শেষের পাতা

স্টাফ রিপোর্টার | ১৬ মার্চ ২০১৯, শনিবার, ৯:১৯

সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী (বার) সমিতির ২০১৯-২০ মেয়াদের নির্বাচনে সভাপতি পদে আওয়ামী লীগ সমর্থিত আবু মোহাম্মদ (এএম) আমিন উদ্দিন ও সম্পাদক পদে বিএনপি-জামায়াত সমর্থিত এএম মাহবুব উদ্দিন খোকন নির্বাচিত হয়েছেন।

বিএনপি-জামায়াত সমর্থিত জাতীয়তাবাদী আইনজীবী (নীল) প্যানেল একটি সহ-সভাপতি, কোষাধ্যক্ষ, একটি সহ-সম্পাদক ও ৪টি সদস্যসহ মোট ৮টি পদে জয়ী হয়ে সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেয়েছে। আওয়ামী লীগ সমর্থক বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদ (সাদা) থেকে এম আমিন উদ্দিন ৩২২৫ ভোটে সভাপতি নির্বাচিত হন। প্রতিদ্বন্দ্বী নীল প্যানেলের এজে মোহাম্মদ আলী  পেয়েছেন ২৪৪৩ ভোট। সম্পাদক পদে ৩০৫৬ ভোটে নির্বাচিত হয়েছেন মাহবুব উদ্দিন খোকন। তার প্রতিদ্বন্দ্বী সাদা প্যানেলের মো. আবদুন নূর (দুলাল) পেয়েছেন ২৬৪৯ ভোট।

নীল প্যানেল থেকে সহ-সভাপতি আবদুল বাতেন (২৮৫৬), কোষাধ্যক্ষ মো. ইমাম হোসেন (২৯৪৭), সহ-সম্পাদক শরীফ ইউ আহমেদ (২৭২২), চারটি সদস্য কাজী আকতার হোসেন (৩১৬৯), রাশিদা আলিম (৩০৯৬), মোহাম্মদ ওসমান চৌধুরী (৩০৩৬) ও সৈয়দা শাহীন আরা লাইলী (২৮৬৬) নির্বাচিত হয়েছেন।

সাদা প্যানেল থেকে সহ-সভাপতি মো. জসিম উদ্দিন, সহ-সম্পাদক কাজী শামসুল হাসান শুভ (২৭২৮), তিনটি সদস্য পদে- মো. শামীম সরদার (২৯৮৩), আফিফা আফরোজ রানী (২৮৭৭) ও চঞ্চল কুমার বিশ্বাস (২৮৫২) জয়ী হয়েছেন।
শুক্রবার বেলা ১১টা ৪৫ মিনিটে ফলাফল ঘোষণা করেন নির্বাচন উপ-কমিটির আহ্বায়ক ও জ্যেষ্ঠ আইনজীবী এওয়াই, মসিউজ্জামান। ফল ঘোষণার আগে তিনি বলেন, দু’টি রাজনৈতিক দলের প্যানেল সৌহার্দ্যপূর্ণ সম্পর্ক ঠিক রেখে নির্বাচন করেছে। বাংলাদেশের  কোথাও এমন সুন্দর নির্বাচন হয়নি। ৩০ ডিসেম্বরের জাতীয় নির্বাচন ও ১১ মার্চের ডাকসু নির্বাচনকে ম্লান করেছে সুপ্রিম কোর্ট বারের নির্বাচন।


বিজয়ী সভাপতি এএম আমিন উদ্দিন তার প্রতিক্রিয়ায় বলেছেন, ভোটারদের প্রতি কৃতজ্ঞ। নির্বাচন কমিশনকে সুন্দর নির্বাচনের জন্য ধন্যবাদ। আমি সবগুলো প্রতিশ্রুতি অক্ষরে অক্ষরে পালন করব।
মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেন, সুপ্রিম কোর্ট বারের নির্বাচন উপ-কমিটির আহ্বায়ক সুষ্ঠু ও সুন্দর নির্বাচন উপহার দিয়ে প্রমান করেছে বাংলাদেশেও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন হয়। আমি তাকে বাংলাদেশের প্রধান নির্বাচন কমিশনার করার প্রস্তাব করছি। গত ৩০শে ডিসেম্বরের নির্বাচনে দেশের মানুষ ভোট দিতে পারেনি। আমি গণতন্ত্র, আইনের শাসন, স্বাধীন বিচার বিভাগ ও মানবাধিকারের সুরক্ষার পক্ষে অঙ্গীকার করছি। মিথ্যা মামলায় কারারুদ্ধ বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবি করছি। তার এ বক্তব্য শেষে নির্বাচনের আহ্বায়ক ও ওয়াই মসিউজ্জামান আপত্তি জানিয়ে বলেন, একটি সুন্দর পরিবেশকে রাজনৈতিক বক্তব্য দিয়ে অসুন্দর করা হলো। এটা ঠিক নয়।

এএম আমিন উদ্দিন ২০০৬-০৭ মেয়াদে সুপ্রিম কোর্ট বারের সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছিলেন। মাহবুব উদ্দিন  খোকন এ নিয়ে টানা ৭ বার সম্পাদক পদে নির্বাচিত হয়েছেন। সুপ্রিম কোর্ট বারের কার্যনির্বাহী কমিটির ১৪টি পদে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এর মধ্যে সাতটি সম্পাদকীয় ও সাতটি নির্বাহী সদস্যের পদ রয়েছে। গত বুধ ও বৃহস্পতিবার সকাল ১০ টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত  ভোটগ্রহণ চলে। মাঝে এক ঘণ্টা বিরতি ছিল। বৃহস্পতিবার রাত ৩ টা থেকে শুরু হয়ে শুক্রবার সাড়ে ১১টায় গণনা শেষ হয়।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর