× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২৬ এপ্রিল ২০১৯, শুক্রবার

মোদীর বায়োপিকে নিষেধাজ্ঞা নির্বাচন কমিশনের

ভারত

কলকাতা প্রতিনিধি | ১১ এপ্রিল ২০১৯, বৃহস্পতিবার, ১:০০

মোদীর বায়োপিক ‘পিএম নরেন্দ্র মোদী’র প্রদর্শন নিয়ে কয়েকদিন ধরে আইন আদালত হওয়ার পরও জট খোলেনি। মঙ্গলবার সুপ্রিম কোর্ট এ ব্যাপারে কোনও সিদ্ধান্ত নিতে অস্বীকার করেছিল। তবে বুধবার নির্বাচন কমিশন জানিয়ে দিয়েছে, নির্বাচন পুরোপুরি  শেষ না হওয়া পর্যন্ত এই ছবি দেখানো যাবে না। সেন্সর সার্টিফিকেট পাওয়ায় নির্মাতারা ছবিটি মুক্তির ব্যাপারে আশাবাদী ছিলেন। প্রথমে ৫ এপ্রিল  ছবি মুক্তির দিন নির্ধারিত ছিল।  পরে তা ১১ এপ্রিল করা হয়েছিল। তবে বুধবার  নির্বাচন কমিশন জানিয়ে দিয়েছে, এই ছবি মুক্তি পেলে রাজনৈতিক ‘পরিবেশ’ নষ্ট হতে পারে। কংগ্রেস সহ বিরোধীরা অভিযোগ করেছিল, এই ছবি মুক্তি পেলে ভোটাররা প্রভাবিত হতে পারেন। এদিন কমিশনের তরফে বলা হয়েছে, কারও জীবনের উপর ভিত্তি করে তৈরি বায়োপিকের বিষয়বস্তু রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত বা ব্যক্তিস্বার্থ চরিতার্থ করে।
নির্বাচনের সময় এটা রাজনৈতিক ভারসাম্য নষ্ট করতে পারে।

তাই নির্বাচনী আচরণবিধি বলবৎ থাকা পর্যন্ত এটা সিনেমা হল বা বৈদ্যুতিক কোনও মাধ্যমে দেখানো উচিত নয়। তবে কমিশন এও জানিয়েছে, সুপ্রিম কোর্টের কোনও অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতির প্যানেল বিষয়টি আরও নিখুঁতভাবে খতিয়ে দেখবে। জানা গেছে, সামান্য এক চা-ওয়ালা থেকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর এই জীবনযাত্রাই ‘পিএম নরেন্দ্র মোদী’র বিষয়বস্তু। মোদীর ভূমিকায় অভিনয় করেছেন বিবেক ওবেরয়। ছবির বেশির ভাগ অংশের শুটিং হয়েছে গুজরাট, হিমাচল প্রদেশ এবং দিল্লিতে। কিন্তু প্রথম থেকেই ভোটের মুখে এই ছবি মুক্তি নিয়ে বিতর্ক তৈরি হয়েছিল। ছবিটি পরিচালনা করেছেন ওমাঙ্গ কুমার। আর ছবির প্রযোজক হলেন সন্দীপ সিং।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর