× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২৬ এপ্রিল ২০১৯, শুক্রবার

‘মুসলিমদেরকে ধর্মান্তরিত করে ভারতকে হিন্দু রাষ্ট্র বানাতে চান মোদি’

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ১৪ এপ্রিল ২০১৯, রবিবার, ১২:৪৪

অল ইন্ডিয়া ইউনাইটেড ডেমোক্রেটিক ফ্রন্টের (এআইইউডিএফ) প্রধান বদরুদ্দিন আজমল ভারতে ক্ষমতাসীন দল বিজেপি ও প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বিরুদ্ধে অভিযোগ এনে বলেছেন, তারা মুসলিমদেরকে ধর্মান্তরিত করে হিন্দু বানানোর চেষ্টা করছেন। কারণ, তারা ভারতকে একটি ‘হিন্দু রাষ্ট্র’ বানাতে চান। এ খবর দিয়েছে অনলাইন টাইমস অব ইন্ডিয়া। এতে আরো বলা হয়, লোকসভা নির্বাচনে বরপেটা আসনের বনগাইগাওতে শনিবার নির্বাচনী সমাবেশ করেন আজমল। সেখানেই তিনি এই অভিযোগ করেন। তার ভাষায়, প্রধানমন্ত্রী ( মোদি) মুসলিমদেরকে ধর্মান্তরিত করে হিন্দু বানানোর চেষ্টা করছেন। এমন কি তিনি সংবিধান পরিবর্তন করে আমাদের দেশকে একটি হিন্দু রাষ্ট্র বানাতে চান।

আসামের ধুবরি আসনের বর্তমান এমপি বদুরুদ্দিন আজমল।
এ আসনে তিনি তৃতীয় মেয়াদে নির্বাচিত হওয়ার জন্য লড়াই করছেন। তাই নির্বাচনী প্রচারণায় তিনি বলেন, ‘শতকরা ৯০ ভাগ মুসলিম এবং হিন্দুরা মোদিকে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে চান না। তাকে বাংলাদেশে পাঠিয়ে দেয়া উচিত, যেখানে তিনি প্রধানমন্ত্রী হতে পারেন। কিন্তু তাকে ভারতের প্রধানমন্ত্রী হতে দেয়া যাবে না। দেশের জনসংখ্যাতত্ত্ব বদল করতে বিজেপি ও মোদিকে অনুমোদন দেবো না। কোটি কোটি মুসলিমকে ধর্মান্তরিত করে হিন্দু বানানোর জন্য সংবিধান পরিবর্তন করতে দেবো না। এই কর্মকা- বন্ধ করতে আপনাদের সমর্থন প্রয়োজন।’

আসামে তিনটি আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছে আজমলের দল এআইইউডিএফ। এগুলো হলো বরপেটা, ধুবরি ও করিমগঞ্জ। ২০১৪ সালে এ আসনগুলোতে দলটি জিতেছিল। ওই বছর তারা ৯টি আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছিল। এখানে প্রথম দফা নিবাচনের সময় তুলনামূলক নীরব ছিলেন আজমল। এরপরই দ্বিতীয় ও তৃতীয় দফা নির্বাচনকে সামনে রেখে তিনি প্রচারণার গতি বাড়িয়ে দিয়েছেন। কারণ সামনের নির্বাচনে তার দলের আসন পড়েছে। তাই তিনি শুক্রবার বরপেটায় বলেছেন, যদি লোকসভা নির্বাচনে মোদি বিজয়ী হন তাহলে তিনি দেশকে হিন্দু রাষ্ট্রে পরিণত করে ধ্বংস করে দেবেন এ দেশ।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
Kazi
১৪ এপ্রিল ২০১৯, রবিবার, ৮:৩৮

Mr Azmal you have crossed the limit. As an Indian keep your tongue controlled with in the territory of India. Don't treat it long enough to involve Bangladesh. What wrong with Bangladesh. Are you zealous of our prosperity?

sdd
১৪ এপ্রিল ২০১৯, রবিবার, ৭:৪৭

আসামের বর্তমান সমস্যার একটা বড় কারণ এই আজমল, কারণ সে পাকিস্তান ও চীনের নির্দেশে আসামের মুসলমানদের হিন্দুদের থেকে রাজনৈতিকভাবে বিভক্ত করে এই সংকট তৈরী করেছে।

অন্যান্য খবর