× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ১৮ আগস্ট ২০১৯, রবিবার

নাদিমের অন্যরকম সেলুন

রকমারি

আবিদুল হক সোহেল | ২১ এপ্রিল ২০১৯, রবিবার, ১২:১৬

একটি সাধারণ মানের  সেলুনে চুল কাটাতে যখন লাগে ৫০/৬০ টাকা। ঠিক তখন মোহাম্মদপুরে টাউন হল-এর যাত্রী ছাউনির পাশেই দেখা যায় একজন নাপিতকে। যিনি ৩০ টাকায় চুল কাটান আর সেভ ২০ টাকা। নেই তার কোনো সেলুন ঘর, নেই দামি দামি চুল কাটার মেশিন। খোলা আকাশের নিচে আছে শুধু একটা চেয়ার, আয়না আর কিছু যন্ত্রাংশ।

বলছিলাম ৪১ বছর বয়সী মোহাম্মদ নাদিমের কথা। যার দুটি মেয়েকে নিয়েই সংসার। তার মধ্যে বড় মেয়ের বিয়ে হয়ে গেছে।
আর ছোট  মেয়েটির বয়স মাত্র ১০। সাড়ে চার বছর ধরে  ছোট্ট মেয়েকে নিয়ে থাকেন মোহাম্মদপুর বিহারী ক্যাম্পে।
পূর্ব পুরুষের হাত ধরে এই পেশায় না আসলেও এই পেশায় কাজ করে যাচ্ছেন বহু বছর ধরেই। সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত চুল কেটে থাকেন তিনি। মাস শেষে উপার্জন হয় দশ থেকে বার হাজার টাকা।

নিজে পড়ালেখা করতে পারেন নি কিন্তু তিনি ঠিকই তার ছোট মেয়েকে স্কুলে ভর্তি করিয়ে দিয়েছেন। মোহাম্মদপুরের একটি স্কুলে তৃতীয়  শ্রেণিতে অধ্যয়নরত আছে সে।
আমার একটিই স্বপ্ন। ছোট মেয়েটিকে ঘিরে।  মেয়েটি যেন বড় হয়ে ভালো মানুষ হয়। শিক্ষিত হয়। আর ভালো পরিবারে বিয়ে হোক তার এটাই স্বপ্ন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর