× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২৩ মে ২০১৯, বৃহস্পতিবার

দেশে ফিরতে চান না ভানুয়াতুতে পাচার হওয়া ১০১ বাংলাদেশী

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ২৪ এপ্রিল ২০১৯, বুধবার, ১২:৪১

ভানুয়াতুতে পাচারের শিকার ১০১ বাংলাদেশী দেশে ফিরতে চান না। তারা চান তৃতীয় কোনো একটি দেশে তাদেরকে পাঠিয়ে দেয়া হোক। দেশে ফেরত পাঠালে ঋণদাতারা তাদেরকে মেরে ফেলবে। বাংলাদেশের কূটনীতিকদের কাছে তারা এসব কথা বলেছেন। সোমবার অস্ট্রেলিয়ায় বাংলাদেশ হাই কমিশনের প্রতিনিধি নাহিদ আফ্রোজ তাদের সঙ্গে সাক্ষাত করেন। এ সময় পাচারের শিকার ওই বাংলাদেশীদের মুখপাত্রে পরিণত হওয়া শাহিন খান বলেছেন, তাদের সবাই দেশে ফিরতে চান না। তাদের আতঙ্ক দেশে ফিরলে ঋণদাতারা মেরে ফেলবে। শাহিন খান বলেছেন, বাংলাদেশের ওই প্রতিনিধির কাছে আমরা বলেছি, আমাদেরকে অস্ট্রেলিয়া বা নিউজিল্যান্ডে কাজ দিন, যাতে আমরা কাজ করে পরিবারকে বাঁচাতে পারি। আমরা বাঁচতে পারি সম্মান আর মর্যাদার সঙ্গে। আমরা কোনো সমাজের জন্য বোঝা হতে চাই না। চাই না ভিক্ষা করে জীবন কাটাতে।   

ভানুয়াতুর পত্রিকা ডেইলি পোস্ট সাম্প্রতিক এক রিপোর্টে বলেছে, পাচারের শিকার হয়ে ভানুয়াতুতে আটকে পড়া একজন বাংলাদেশী হলেন কামরুল হাসান। তিনি বলেছেন, আমি দেশে ফিরতে চাই না। কারণ, প্রচ- আর্থিক সঙ্কটের মুখে আমি। এখানে আসার আগে ব্যাংক থেকে ঋণ নিয়েছি। আত্মীয় স্বজনদের কাছ থেকে অর্থ ধার করেছি। সহায় সম্পদ বিক্রি করেছি। ব্যবসা বন্ধ করেছি। কিন্তু এখানে আসার পর থেকে আমার আয়ের কোনোই পথ নেই। ফলে আমাকে দেশে ফেরত পাঠানো হলে পরিবারকে সাহায্য করতে পারবো না। তাই আমি চাই ভানুয়াতু সরকার আমাকে পুনর্বাসনে সহায়তা করুক অন্য কোনো একটি দেশে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর