× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ১৮ জুন ২০১৯, মঙ্গলবার

ইসলামিক রিলিফ বাংলাদেশের বন্ড অ্যাওয়ার্ড অর্জন

অনলাইন

অনলাইন ডেস্ক | ২৪ এপ্রিল ২০১৯, বুধবার, ৪:৪৩

সমাজের সবচেয়ে অবহেলিত এতিম শিশুদের সামাজিক মর্যাদা বৃদ্ধি ও সমাজের মূল ধারা আনয়ন, সরকারি সামাজিক নিরাপত্তামূলক ও আয় বর্ধনমূলক কাজে এতিম পরিবারকে সহায়তাকল্পে সরকারের পাশাপাশি বেসরকারি সংস্থাসমূকে এগিয়ে আসতে হবে। মঙ্গলবার রাজধানীর একটি হোটেলে যুক্তরাজ্য ভিত্তিক আর্ন্তজাতিক উন্নয়ন সংস্থা ইসলামিক রিলিফ বাংলাদেশ আয়োজিত ‘সেলিব্রেশন অব বন্ড ইন্টারন্যাশনাল ডেভেলপমেন্ট অ্যাওয়ার্ড’ শীর্ষক এক অনুষ্ঠানে বক্তারা এসব কথা বলেন।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি পরিকল্পনা মন্ত্রী এমএ মান্নান বলেন, ইসলামিক রিলিফ বাংলাদেশ এতিম পবিরারের উন্নয়নে বন্ড অ্যাওয়ার্ড প্রাপ্তি সত্যিই প্রশংসনীয়। এরকম প্রকল্প বাংলাদেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে আরো বেশি করে গ্রহণ করা প্রয়োজন। তিনি বলেন, একটি অসাম্প্রদায়িক, ধর্ম নিরপেক্ষ দেশ হিসেবে বাংলাদেশকে গড়ে তোলার জন্য আমাদের সকলকে এক যোগে কাজ করতে হবে। সকল মানুষের কল্যাণে, মানবতার উন্নয়নে কাজ করতে হবে। বাল্য বিবাহ রোধে সকল বেসরকারি সংস্থাকে এক যোগে কাজ করার আহবান জানান তিনি।

বিশেষ অতিথি মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব আইনুল কবীর বলেন, মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয় কিশোর কিশোরীদের নিয়ে উন্নয়নে সারা দেশে কাজ করছে, বাল্য বিবাহ দূরীকরণ, নৈতিক শিক্ষা বিষয় নিয়ে ইসলামিক রিলিফের সঙ্গে যৌথভাবে আমাদের কাজ করার সুযোগ রয়েছে।


সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব সুশান্ত কুমার প্রামাণিক বলেন, সমাজ কল্যাণ মন্ত্রণালয় এতিম শিশু, বয়স্ক, প্রতিবন্ধীদের উন্নয়নে নানা কর্মসূচি বাস্তবায়ন করে। সমাজের এই অবহেলিত জনগোষ্ঠীর জন্য যত বেশি কার্যক্রম গ্রহণ করা যায়, মন্ত্রণালয় সে লক্ষ্যে কাজ করছে। তবে এটিকে বহুমূখী কার্যক্রমের আওতায় আনতে সরকারি বেসরকারি অংশীদারিত্ব অনস্বীকার্য।

বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ইন্টারন্যাশনাল স্ট্যাটেজিক স্ট্যাডিজের বোর্ড অব গভনরস চেয়ারম্যান রাষ্ট্রদূত মুন্সী ফয়েজ আহমদ বলেন, সরকারের একার পক্ষে উন্নয়ন মূলক কার্যক্রম বাস্তবায়ন সম্ভব নয়, সরকারি-বেসরকারি সংস্থার সম্মিলিত প্রচেষ্টায় সুবিধা বঞ্চিত মানুষের ভাগ্যোন্নয়ন ত্বরান্বিত হয়।

ইসলামিকরিলিফবাংলাদেশ-এর কান্ট্রি ডিরেক্টর আকমল শরীফ বলেন, কুড়িগ্রাম জেলার ওলিপুর উপজেলায় ৭শত এতিম শিশু ও তাদের পরিবারের মর্যাদা ও সুরক্ষা বৃদ্ধি এবং টেকসই উন্নয়ন নিশ্চিত করণের লক্ষ্যে ৪ বছর মেয়াদী “অল্টারনেটিভ অরফান ফ্যামিলি স্পন্সরশীপ প্রোগ্রাম থ্রূূ সাসটেইনেবল লাইভলি হুডস” প্রকল্প বাস্তবায়ন করে। যা এবছরই নোভেশন ক্যাটাগরিতে ব্রিটিশ ওভারসিজ এনজিও ফর ডেভেলপমেন্ট (বন্ড) অ্যাওয়ার্ড লাভ করে। বন্ডঅ্যাওয়ার্ড হলো যুক্তরাজ্যে প্রতিষ্ঠিত এনজিওদের সংগঠন, যা বিশ্বের বিভিন্ন দেশে উন্নয়ন মূলক কার্যক্রম বাস্তবায়ন করছে। তিনি এই সম্মাননাটি বাংলাদেশের সুবিধা বঞ্চিত মানুষকে উৎসর্গ করেন।

অনুষ্ঠানে বন্ড অ্যাওয়ার্ড প্রাপ্ত প্রকল্পটি সম্পর্কে বিস্তারিত তুলে ধরে সংস্থার প্রোগ্রাম ম্যানেজার এনামুল হক সরকার বলেন, এটি একটি সমন্বিত কার্যক্রম, যেখানে প্রকল্পভূক্ত সকল শিশুর বিদ্যালয়ে গমন এবং পড়াশোনা নিশ্চিতকরণ, স্বাস্থ্যসেবা প্রদান, ঘরে ও বাইরে শিশুদের জন্য নিরাপদ পরিবেশ তৈরীকরণ, পরিবারের আয় ও সম্পদ বৃদ্ধি এবং খাদ্য নিশ্চয়তা, পানি ও পয়:নিস্কাশন ব্যবস্থা এবং বিভিন্ন স্বিদ্ধান্ত গ্রহণমূলক কাজে সক্রিয় অংশগ্রহণ নিশ্চিত করণের বিষয় গুলো রয়েছে। অ্যাওয়ার্ড প্রাপ্ত এই প্রকল্পের মাধ্যমে প্রতি শিশুকে মাসে ৫ শত টাকা লেখাপড়ার খরচ এবং তার পরিবারকে কারিগরি প্রশিক্ষণ প্রদানের পর এক কালীন ২০ হাজার টাকা অনুদান দেয়া হয়। ফলে শিশুদের পড়াশোনা নিশ্চিত হয়েছে এবং আয় বৃদ্ধিমূলক কাজে পরিবারগুলো সম্পৃক্ত হয়ে স্বাবলম্বী হয়েছে। কুড়িগ্রামে সফলভাবে প্রকল্পটি সমাপ্তের পর বর্তমানে রংপুরের কাউনিয়া ও লালমনিরহাট জেলার আদিতমারীতে এতিম পরিবারের উন্নয়নে কাজ করছে।

অনুষ্ঠানে বন্ড অ্যাওয়ার্ড প্রাপ্ত প্রকল্পটি সম্পর্কে বিস্তারিত তুলে ধরেন সংস্থার প্রোগ্রাম ম্যানেজার এনামুল হক সরকার এবং সমাপনী বক্তব্য রাখেন হিউম্যানিটেরিয়ান বিভাগের প্রধান গোলাম মোতাসিম বিল্লাহ।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর