× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ১৮ জুন ২০১৯, মঙ্গলবার

ব্যাটে-বলে সেরা সাইফ-ফরহাদ রেজাসেরা ৫ ব্যাটসম্যান

খেলা

স্পোর্টস রিপোর্টার | ২৫ এপ্রিল ২০১৯, বৃহস্পতিবার, ৯:৪২

আবাহনী লিমিটেডের ২০তম শিরোপা জয়ের মধ্য দিয়ে পর্দা নেমেছে ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লীগের (ডিপিএল)। প্রথম পর্ব থেকে সুপার লীগ, সবখানেই দারুণ লড়াই হয় এবার। ব্যক্তিগত নৈপুণ্যে উজ্জ্বল ছিলেন তরুণরা। রান সংগ্রহ ও উইকেট শিকারে তারা দেখিয়েছেন আধিপত্য।
রান তোলায় সবার উপরে প্রাইম দোলেশ্বরের ২০ বছর বয়সী ওপেনার সাইফ হাসান। ১৬ ম্যাচে ৬২.৬১ গড়ে ৮১৪ রান করেন সাইফ। স্ট্রাইকরেট ৭৯.৩৩। সেঞ্চুরি ৩টি, হাফসেঞ্চুরি ৪টি। বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দলে খেলা সাইফ এখন পর্যন্ত লিস্ট-এ ক্রিকেটে ৫৯ ম্যাচে ৪১.৯৪ গড়ে ২ হাজার ২২২ রান সংগ্রহ করেছেন।  দ্বিতীয় স্থানে লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জের ওপেনার মোহাম্মদ নাঈম।
১৬ ম্যাচে ৫৩.৮০ গড়ে ৮০৭ রান এসেছে ১৯ বছর বয়সী এই ব্যাটসম্যানের উইলো থেকে। স্ট্রাইকরেট  ৯৪.৩৮। আসরে ৩টি সেঞ্চুরি ও ৫টি হাফসেঞ্চুরি করেছেন নাঈম। লিস্ট-এ ক্রিকেটে মাত্র ২৮ ম্যাচেই ১ হাজার ৩৬৩ রান করে ফেলেছেন নাঈম। মোহামেডানের অভিজ্ঞ ক্রিকেটার রাকিবুল হাসান ১৬ ম্যাচে ৬০.০৭ গড়ে ৭৮১ রান করে তালিকার তৃতীয় স্থানে রয়েছেন। স্ট্রাইকরেট ৯৬.০৬।  সেঞ্চুরি একটি। আর টুর্নামেন্টের সর্বাধিক ৮টি হাফসেঞ্চুরি এসেছে রকিবুলের ব্যাট থেকে। ১৫ ম্যাচে ৩ সেঞ্চুরিসহ ৫৬.৫৩ গড়ে ৭৩৫ রান করে আবাহনীর ওপেনার জহুরুল ইসলাম রয়েছেন চারে। পঞ্চম স্থানে ব্রাদার্স ইউনিয়নের ফজলে মাহমুদ। ১৩ ম্যাচে ৩ সেঞ্চুরিতে ৭৫.৩৭ গড়ে ৬০৩ রান সংগ্রহ করেন তিনি।
ডিপিএলে লীগ পর্বে শীর্ষ উইকেট শিকারি বোলার ছিলেন ফরহাদ রেজা। টুর্নামেন্ট শেষেও সবার উপরেই তিনি। ১৬ ম্যাচে ১৬.৩৯ গড়ে ৩৮ উইকেট নেন প্রাইম দোলেশ্বরের এই পেস অলরাউন্ডার। লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জের পেসার মোহাম্মদ শহীদের শিকার ১৫ ম্যাচে ২৭ উইকেট। তালিকায় তিনি রয়েছেন দ্বিতীয় স্থানে। বল হাতে সাফল্য পেয়েছেন বর্তমানে জাতীয় দলে খেলা সাইফউদ্দিন। ১৩ ম্যাচে ২৫ উইকেট নিয়ে আবাহনীকে শিরোপা জেতাতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেন এই পেস অলরাউন্ডার। বিকেএসপির ১৭ বছর বয়সী বাঁহাতি স্পিনার হাসান মুরাদ ১৩ ম্যাচে ২২ শিকার করে চতুর্থ স্থানে জায়গা করে নিয়েছেন। লিস্ট-এ ক্রিকেটে অভিষেক মৌসুমেই নজরকাড়া পারফরমেন্স দেখালেন মুরাদ। খেলাঘরের ১৯ বছর বয়সী মিডিয়াম পেসার রবিউল ইসলাম ১১ ম্যাচে ২২ উইকেট নিয়ে আছেন পঞ্চম স্থানে। এখন পর্যন্ত লিস্ট-এ ক্রিকেটে ১৯.৩৮ গড়ে ২৬ ম্যাচে ৪৯ উইকেট নিয়েছেন রবিউল।



খেলোয়াড়    ম্যাচ    রান    সর্বোচ্চ    গড়    ১০০/৫০
সাইফ হাসান (দোলেশ্বর)    ১৬    ৮১৪    ১৪৮*    ৬২.৬১    ৩/৪
মোহাম্মদ নাঈম (রূপগঞ্জ)    ১৬    ৮০৭    ১৩৬    ৫৩    ৩/৫
রকিবুল হাসান (মোহামেডান)    ১৬    ৭৮১    ১০২    ৬০.০৭    ১/৮
জহুরুল ইসলাম অমি (আবাহনী)    ১৬    ৭৩৫    ১৩০    ৫৬.৫৩    ৩/৩

সেরা ৫ বোলার
খেলোয়াড়    ম্যাচ    উই.    সেরা    গড়    ৪ উই./৫ উই.
ফরহাদ রেজা (দোলেশ্বর)    ১৬    ৩৮    ৫/৪০    ১৬.৩৯    ৩/১
মোহাম্মদ শহীদ (রূপগঞ্জ)    ১৫    ২৭    ৪/২২    ২১.০৩    ২/০
সাইফুদ্দিন (আবাহনী)     ১৩    ২৫    ৫/৯    ১৯.৮৪    ০/২
হাসান মুরাদ (বিকেএসপি)    ১৩    ২২    ৪/৩০    ২১.১৮    ১/০
রবিউল হায়দার (খেলাঘর)    ১১    ২২    ৫/৪১    ২২.৭২    ০/২

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর